১২ নভেম্বর ২০১৯

৬ দফা দাবি আদায়ে ভোলায় মুসলিম ঐক্য পরিষদের স্মারকলিপি

৬ দফা দাবি আদায়ে ভোলায় মুসলিম ঐক্য পরিষদের স্মারকলিপি - নয়া দিগন্ত

ভোলার বোরহানউদ্দিনের ঘটনায় ৬ দফা দাবিতে জেলা প্রশাসকের কাছে স্মারকলিপি দিয়েছে ভোলা জেলা মুসলিম ঐক্য পরিষদ। সোমবার (২৮ অক্টোবর) দুপুর ১২টায় সংগঠনের সভাপতি আবদুর রহমান খানের নেতৃত্বে ৫ সদস্যের প্রতিনিধি দল জেলা প্রশাসক মাসুদ আলম ছিদ্দিকের কাছে এই স্মারকলিপি প্রদান করেন। বোরহানউদ্দিনের ঘটনার বিচার বিভাগীয় তদন্ত, অজ্ঞাত ৫হাজার জনকে আসামি করে দায়ের করা পুলিশের মামলা প্রত্যাহার, ঐ মামলায় গ্রেফতারকৃতদের মুক্তি, আহতদের উন্নত চিকিৎসাসহ ৬ দফা দাবিতে স্মারকলিপি প্রদান করেন তারা।

৬ দফা দাবি হলো-

১। মহান আল্লাহ তায়ালা ও প্রিয় নবী হযরত মোহাম্মদ (স.) সম্পর্কে কটুক্তি ইসলামে মারাত্মক ও ক্ষমার অযোগ্য অপরাধ। শরীয়তে এ বিষয়ে কোনো মার্জনা নেই। তাই সর্বোচ্চ শাস্তির বিধান রেখে জাতীয় সংসদে আইন পাস করতে হবে।

২। বোরহানউদ্দিন উপজেলাধীন কাচিয়া ইউনিয়নের এক হিন্দু ধর্মাবল্বী ব্যক্তি ‘বিপ্লব চন্দ্র শুভ’র ফেসবুক আইডি থেকে মহান আল্লাহ তায়ালা ও মহানবী হযরত মোহাম্মদ (স.) এবং নবী কন্যা মা ফাতেমা (র.) কে নিয়ে কটুক্তিকারীর সর্বোচ্চ শাস্তি নিশ্চিত করতে হবে।

৩। বোরহানউদ্দিনে ধর্মপ্রান মুসলিম তৌহীদি জনতার সাথে পুলিশের অনাকাঙ্খিত ঘটনায় দায়ের করা মিথ্যা ও হয়রানিমূলক মামলা প্রত্যাহার ও গ্রেফতারকৃতদের নিঃশর্ত মুক্তি দিতে হবে।

৪। ধর্মপ্রাণ নিরীহ, নিরস্ত্র, শান্তিপ্রিয় মুসলিম তৌহিদী জনতার উপর কোনোরূপ উস্কানী ছাড়াই অতিউৎসাহী হয়ে পুলিশের নির্মম গুলিবর্ষণে ৪জন শহীদ ও বহুসংখ্যক আহতদের ঘটনার দ্রুত বিচার বিভাগীয় তদন্ত করতে হবে।

৫। বোরহানউদ্দিন উপজেলায় সংখ্যালঘুদের ঘরবাড়ি ও মন্দিরে ভঙচুরের সাথে মুসলিম তৌহিদী জনতার কোনো সম্পর্ক নেই। এটা একটি সাজানো ঘটনা বলে আমাদের ধারণা। এর মাধ্যমে পুলিশের গুলিতে হতাহতদের ঘটনাকে অন্যদিকে প্রভাবিত করে মূল ঘটনাকে আড়াল কারার অপচেষ্টা করা হচ্ছে। তাই এ ঘটনার বিচার বিভাগীয় তদন্ত করতে হবে।

৬। আহতদের সুচিকিৎসা নিশ্চিতকরণের লক্ষ্যে দ্রুত পর্যাপ্ত সহযোগিতা ও উন্নত চিকিৎসার সকল ব্যবস্থা করতে হবে।


আরো সংবাদ