১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯

মাছধরা ট্রলারে জলদস্যুর হানা, দুই জেলেকে সাগরে নিক্ষেপ

-

গভীর বঙ্গোপসাগরের মাছ ধরার সময় এফবি খাজা আজমীর নামে একটি মাছ ধরা ট্রলারে জলদস্যুরা ডাকাতি করেছে। এসময় ওই ট্রলারের ইঞ্জিন বিকল করে প্রায় পাঁচ লাখ টাকার মাছ নিয়ে যায় ওই জলদস্যুরা। এতে বাধা দিলে ট্রলারের ১০ জেলেকে পিটিয়ে গুরুতর আহত ও দুই জেলেকে সাগরে ফেলে দেয় তারা।

সোমবার দুপুর ১টার দিকে বরগুনা জেলা ফিশিং ট্রলার শ্রমিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক মো: দুলাল মিয়া এ তথ্য জানান। শনিবার দিনগত ৩টার দিকে ডাকাতির ঘটনা ঘটে।

এফবি খাজা আজমীর ট্রলারের ১০ জেলে বঙ্গোপসাগরের বঙ্গবন্ধুর চরে রয়েছেন। নিখোঁজদের সন্ধান চলছে। তবে, কোন জলদস্যু বাহিনী এ কাজ করেছে, তা এখন পর্যন্ত জানাতে পারেনি জেলেরা।

নিখোঁজ জেলে মন্নানের বাড়ি পাথরঘাটা উপজেলার রুহিতা গ্রামে ও রিয়াজের বাড়ি মোড়লগঞ্জের ফুলহাতা এলাকায়।

ডাকাতি হওয়া এফবি খাজা আজমীর ট্রলারের মালিক অলিয়ার রহমানের বরাত দিয়ে দুলাল মিয়া জানান, গত শনিবার দিবাগত ৩টার দিকে বঙ্গোপসাগরের চালনাবয়া এলাকায় মাছ শিকার করছিল জেলেরা। এসময় ১০ থেকে ১৫ জনের একটি দস্যুবাহিনী ওই ট্রলারে উঠে প্রথমে ইঞ্জিন বিকল করে। পরে ট্রলারে থাকা প্রায় পাঁচ লাখ টাকার ইলিশ মাছ ছিনতাই করে নিয়ে যায়। ট্রলারের জেলেরা মাছ নিতে বাধা দিলে তাদের মারধর করে গুরুতর আহত করে মো: রিয়াজ ও আ: মন্নান নামে দুই জেলেকে সাগরে ফেলে দেয় দস্যুরা।

এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত নিখোঁজ জেলেদের সন্ধান পাওয়া যায়নি।


আরো সংবাদ