২৩ আগস্ট ২০১৯

বরগুনায় রিফাত হত্যা মামলায় মিন্নিকে জিজ্ঞাসাবাদ করছে পুলিশ

বরগুনায় রিফাত হত্যা : মিন্নিকে জিজ্ঞাসাবাদ - নয়া দিগন্ত

রিফাত শরীফ হত্যা মামলার প্রধান সাক্ষী ও নিহতের স্ত্রী আয়েশা সিদ্দিকা মিন্নিকে হত্যা মামলায় জড়িত আসামিদের শনাক্ত করতে পুলিশ লাইনসে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। মঙ্গলবার সকালে বরগুনা পৌরসভার মাইঠা এলাকার নিজ বাসা থেকে তাকে পুলিশ লাইনসে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বরগুনা পুলিশ সুপার মারুফ হোসেন।

মঙ্গলবার দুপুরে পুলিশ সুপার সংবাদ সম্মেলন করে বলেন, রিফাত শরীফ হত্যা মামলার এক নম্বর সাক্ষী মিন্নি। তাই তাকে আসামিদের শনাক্ত ও জিজ্ঞাসাবাদের জন্য পুলিশ লাইনসে নিয়ে আসা হয়েছে। তবে, তাকে এখন পর্যন্ত আটক বা গ্রেফতার করা হয়নি। জিজ্ঞাসাবাদের বিষয়ে বিস্তারিত কোনো কিছু জানায়নি পুলিশ প্রশাসন। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত (বিকেল সাড়ে ৬টা) মিন্নিকে পুলিশ লাইনসেই রাখা হয়েছে।

এর আগে রিফাত শরীফকে কুপিয়ে হত্যার ঘটনার মামলায় অভিযুক্ত আসামিদের আড়াল করতে তার বিরুদ্ধে অপপ্রচার চালানো হচ্ছে বলে অভিযোগ করেছিলেন নিহত রিফাতের স্ত্রী আয়েশা সিদ্দিকা মিন্নি। তাকে গ্রেফতারের দাবিতে শ্বশুর দুলাল শরীফের করা সংবাদ সম্মেলনের বিপরীতে রোববার নিজ বাড়িতে সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন মিন্নি। তবে, শ্বশুরের দাবিকে ভিত্তিহীন বলে পাল্টা সংবাদ সম্মেলন করে মিন্নি বলেন, আমার শ্বশুর অসুস্থ। তিনি কখন কী বলেন তার কোনো ঠিক নেই। আমার শ্বশুরকে দিয়ে কোনো মহল স্বার্থ হাসিল করার জন্য আমাকে পেচিয়ে মামলাটি হালকা করার চেষ্টা করছে। যাতে আসামিরা ছাড়া পেয়ে যেতে পারে। আর আমার যদি নয়নের সঙ্গে বিয়েই হবে তবে যখন রিফাতের সঙ্গে বিয়ে হয়েছিল তখন নয়ন কেন বাধা দেয়নি।

উল্লেখ্য, গত ২৬ জুন সকাল সাড়ে ১০টার দিকে বরগুনা সরকারি কলেজের সামনে রিফাতকে কুপিয়ে হত্যা করে নয়ন বন্ড, রিফাত ফরাজী, রিশান ফরাজীসহ তার সহযোগীরা। এ ঘটনায় রিফাত শরীফের বাবা দুলাল শরীফ বাদী হয়ে ১২ জনকে আসামি করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।


আরো সংবাদ




mp3 indir bedava internet