২৪ আগস্ট ২০১৯
বরগুনায় রিফাত হত্যা

মিন্নিকে গ্রেফতারের দাবি শ্বশুরের

মিন্নিকেই হত্যাকাণ্ডের মূল হোতা বলে দায়ী করে তাকে গ্রেফতারের দাবি জানান রিফাতের বাবা - ছবি : নয়া দিগন্ত

‘রিফাত হত্যাকাণ্ডের মূল হোতা মিন্নি, নয়নের সাথে মিন্নির বিয়ে হয়েছিল। সেই বিয়ের কথা গোপন রেখে রিফাতের সাথে মিন্নির বিয়ে দেয় তার পরিবার। এ হত্যাকাণ্ডের সাথে মিন্নি জড়িত রয়েছে। তাই তাকে গ্রেফতার করে আইনের আওতায় আনতে হবে।’

শনিবার রাত ৮টার দিকে বরগুনা প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলনে নিহত রিফাত শরীফের বাবা আবদুল হালিম দুলাল শরীফ এসব কথা বলেন।

সংবাদ সম্মেলনে তিনি অভিযোগ করে বলেন, ‘রিফাতের সাথে বিয়ে হওয়ার পরেও প্রতিনিয়ত নয়ন বন্ডের সাথে মিন্নির যোগাযোগ ছিল। প্রায় প্রতিদিন নয়ন বন্ডের বাড়িতে আসা-যাওয়া করতো মিন্নি। রিফাতকে হত্যার সময় সিসি টিভির ফুটেজে দেখা গেছে সরকারি কলেজের সামনের গেটে মিন্নিকে রিফাত তার মোটরসাইকেলে উঠিয়ে নিয়ে যেতে চায়, তখন মিন্নি সময় ক্ষেপণ করে। এর মধ্যেই বন্ড গ্রুপ রিফাতকে মারধর করতে করতে কলেজের পূর্ব দিকে নিয়ে যায়। সে সময়ে মিন্নি স্বাভাবিকভাবেই সেই সব দৃশ্য দেখতে থাকে এবং তাদের পেছনে হাঁটতে থাকে। পরে যখন রিফাত ফরাজী ও রিশান ফরাজী দা নিয়ে এসে নয়নের হাতে দিয়ে কোপাতে শুরু করে, তখন মিন্নি বাধা দিলেও তাকে কেউ আঘাত করেনি।’

এসব কারণে মিন্নিকেই হত্যাকাণ্ডের মূল হোতা বলে দায়ী করে তাকে গ্রেফতারের দাবি জানান দুলাল শরীফ।

২৬ জুন সকাল সাড়ে ১০টার দিকে বরগুনা সরকারি কলেজের সামনে রিফাতকে কুপিয়ে হত্যা করে নয়ন বন্ড, রিফাত ফরাজী, রিশান ফরাজীসহ সহযোগীরা। এ ঘটনায় রিফাত শরীফের বাবা দুলাল শরীফ বাদী হয়ে ১২ জনকে আসামি করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।


আরো সংবাদ




mp3 indir bedava internet