২১ জুলাই ২০১৯

পায়রা তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রে সংঘর্ষে চীনা শ্রমিকসহ নিহত ২

দেশের দক্ষিণাঞ্চলীয় জেলা পটুয়াখালীর পায়রা তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রে একজন শ্রমিকের মৃত্যুর ঘটনাকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষের জের ধরে একজন চীনা নাগরিক নিহত হয়েছেন।

পটুয়াখালীর পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মইনুল হাসান জানিয়েছেন, একজন বাংলাদেশী শ্রমিক মঙ্গলবার বিকেলে নিহত হন। এরপর দুই পক্ষের সংঘর্ষে আহত একজন চীনা শ্রমিক বুধবার সকালে বরিশালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন।

তিনি আরো জানান, মঙ্গলবার বিকেলে পায়রা তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রে সাবিন্দ্র দাস নামে একজন বাংলাদেশী শ্রমিক উপর থেকে পড়ে ঘটনাস্থলেই মারা যান। এরপর এ নিয়ে বিদ্যুৎ কেন্দ্রে চীনা শ্রমিকদের সঙ্গে বাংলাদেশী শ্রমিকদের প্রথমে তর্ক-বিতর্ক পরে মারামারি লেগে যায়।

এতে আটজন বাংলাদেশী শ্রমিক এবং ছয়জন চীনা শ্রমিক আহত হন বলে জানান ওই পুলিশ কর্মকর্তা। এরপর রাতে আহতদের পটুয়াখালী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল এবং বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য পাঠানো হয়।

পরে বরিশালে বুধবার ভোরে একজন চীনা শ্রমিক মারা যান। তার নাম জাং ইয়াং ফাং। আহত বাকি চীনা শ্রমিকদের ঢাকায় পাঠানো হয়েছে।

পায়রার ১৩২০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ কেন্দ্রটিতে মোট ছয় হাজার শ্রমিক কাজ করেন, এর মধ্যে দুই হাজারের বেশি চীনা শ্রমিক ও প্রকৌশলী রয়েছেন। এই ঘটনায় এখনো কোন মামলা হয়নি, তবে মামলা করার প্রক্রিয়া চলছে বলে জানিয়েছে পটুয়াখালীর পুলিশ।

মি. হাসান জানিয়েছেন, বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ এই রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত সেখানে অবস্থান করছেন। পায়রা তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রে বিপুল সংখ্যক আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্য মোতায়েন করা হয়েছে।

সেখানকার এখন পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে। তবে, বিদ্যুৎ কেন্দ্রটিতে এখন সব ধরনের কার্যক্রম বন্ধ রয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ। সূত্র : বিবিসি।


আরো সংবাদ

gebze evden eve nakliyat instagram takipçi hilesi