১৭ জুলাই ২০১৯

ছাত্রলীগ নেতার স্বজনদের হামলায় আহত আরেক ছাত্রলীগ

বরিশালের উজিরপুরে মিনি ফুটবল খেলাকে কেন্দ্র করে দুই ছাত্রলীগ নেতার বিরোধের জেরে এক ছাত্রলীগ নেতার স্বজনদের সন্ত্রাসী হামলায় ফায়জুল হক রাকিব (৩০) নামে আরেক ছাত্রলীগ নেতা গুরুত্বর আহত হয়েছেন। তাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

রোববার (১৭ জুন) দুপুরে উপজেলার বামরাইল ইউনিয়নের হস্তিশুন্ড গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় আহত ছাত্রলীগ নেতার বাবা হুমায়ুন কবির তালুকদার বাদী হয়ে ৪ জনের নাম উল্লেখ করে উজিরপুর মডেল থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন।

অভিযোগ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, বামরাইল ইউনিয়নের হস্তিশুন্ড গ্রামের যুবকদের উদ্যোগে সম্প্রতি মিনি ফুটবল টুর্নামেন্ট ছাড়া হয়েছিলো। ওই টুর্নামেন্ট পরিচালনা কমিটির সভাপতি ছিলেন আহত ছাত্রলীগ নেতা রাকিব। কিন্তু ওই ফুটবল টুর্নামেন্টের কমিটির কাউকে না জানিয়ে মফিজুর রহমান তালুকদার নামে স্থানীয় আরেক ছাত্রলীগ নেতা রোববার সকালে ফাইনাল খেলার ঘোষণা দেয়।

এনিয়ে ওই দিন সকালে কাজিরা গ্রামের আনন্দ মার্কেটের সামনে ছাত্রলীগ নেতা রাকিবের সাথে মফিজের বাকবিতন্ডার এক পর্যায়ে মফিজ লাঞ্চিত হয়। এরপর বিষয়টি উভয় ছাত্রলীগ নেতা ওই ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ইউসুফ হাওলাদারসহ দলীয় নেতাকর্মীদের জানালে সন্ধ্যায় মিমাংসার কথা হয়। এরই মধ্যে ছাত্রলীগ নেতা মফিজকে লাঞ্চিতের খবরে তার ছোট ভাইসহ নিকটাত্মীয়রা ছাত্রলীগ নেতা রাকিবকে খুঁজতে থাকে।

এক পর্যায়ে স্থানীয় যুবলীগ নেতা মাসুদ শরীফের বাড়িতে গিয়ে রাকিবকে পেয়ে তার উপরে মফিজের ছোট ভাই ওসমান তালুকদার (২৬), তরিকুল তালুকদার (২৪) ও তাদের সহচর রাজু তালুকদারসহ আরও বেশ কয়েকজন মিলে স্বশস্ত্র সন্ত্রাসী হামলা চালায়।

এতে রাকিবের মাথা ফেটে যায় এবং শরীরের বিভিন্নস্থানে রক্তাক্ত জখম হয়। পরে রাকিবের ডাক-চিৎকারে স্থানীয়রা উদ্ধার করে তাকে উজিরপুর হাসপাতালে ভর্তি করে।

এদিকে হামলার ঘটনা সম্পর্কে কিছুই জানেন না বলে বঙ্গবন্ধু আইন ছাত্র পরিষদ কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য ও ছাত্রলীগ নেতা মফিজুর রহমান জানিয়েছেন, ‘রাকিব সকালে তাকে লাঞ্চিত করেছে এবং সে বিষয়টি দলীয় নেতাকর্মীদের জানালে তারা সন্ধ্যায় মিমাংসা করবেন বলেছিলেন। এর বাইরে আমি কিছুই জানিনা।’

এ বিষয়ে উজিরপুর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শিশির কুমার পাল জানিয়েছেন, ‘এ ঘটনায় আহতর বাবা বাদী হয়ে থানায় লিখিত অভিযোগ দিয়েছে। তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।’


আরো সংবাদ

gebze evden eve nakliyat instagram takipçi hilesi