২১ মে ২০১৯

মা-ভাই ঘরে নেই, এই ফাঁকে ছাত্রীর রুমে ঢুকে শ্লীলতাহানী

মা-ভাই ঘরে নেই, এই ফাঁকে ছাত্রীর রুমে ঢুকে শ্লীলতাহানী - সংগৃহীত

অবশেষে তিন দিন পর সোমবার মাদ্রাসার ৯ম শ্রেণীর ছাত্রীর শ্লীলতা হানীর মামলা নিলেন গলাচিপা থানা পুলিশ। ঘটনাটি ঘটেছে গলাচিপা সদর ইউনিয়নের কালিকাপুর গ্রামে শনিবার রাতে। এ ব্যাপারে মেয়ের মা নুপুর বাদী হয়ে ওই রাতেই গলাচিপা থানায় লিখিত অভিযোগ দিয়েছিল। একাধিক বার গলাচিপা থানা পুলিশ পরিদর্শন করলেও এ ঘটনায় অভিযুক্তকে আটক করতে পারেনি পুলিশ।

মামলা সূত্রে জানা গেছে, গলাচিপা সদর ইউনিয়নের কালিকাপুর গ্রামে মোস্তফা খন্দকারের মেয়ে মুরাদনগর দাখিল মাদ্রাসার ৯ম শ্রেনির ছাত্রী। শনিবার সন্ধ্যার সময় বাড়িতে পড়তে বসে। বড় ভাই ও মা নুপুর বেগম পাশের বাড়ীতে গেলে ওই ফাঁকে রিসান (২০) নামের এক যুবক ঘরের ভেতর অনধিকার প্রবেশ করে ছাত্রীকে জোর পূর্বক কাপড় চোপড় টানা হেচড়ে করে শ্লীলতাহানী ঘটায়।

মেয়েটির ডাক চিৎকারে এলাকার লোকজন এগিয়ে আসলে রিসান পালিয়ে যায়। তখন রাত সাড়ে ৭টা বাজে। মাদ্রাসায় যাওয়ার পথে রিসান প্রায়ই ছাত্রীকে প্রেমের প্রস্তাবসহ আজে বাজে কথা বলত বলে মামলায় অভিযোগ তোলেন। জানা গেছে রিসানের গ্রামের বাড়ী চর বিশ্বাস ইউনিয়নের ৫নং ওয়ার্ডে রিয়াজ চকিদারের ছেলে। সে কালিকাপুর গ্রামের ফুফা খলিলুর রহমান মৃধার বাড়ীতে থাকত।

এ ব্যাপারে গলাচিপা থানার এস আই মাহাবুব মল্লিক জানান, এ ঘটনায় মামলা হয়েছে,তবে আসামীকে ধরার জন্য জোর প্রচেষ্টা চলছে।


আরো সংবাদ




agario agario - agario