১৮ জুন ২০১৯

ভোলা-২, ৩ ও ৪ আসনের বিএনপি প্রার্থীরা অবরুদ্ধ : গোলাম নবী আলমগীর

সাংবাদিক সম্মেলনে বক্তব্য রাখেন ভোলা-১ আসনে বিএনপি মনোনীত প্রার্থী ও জেলা বিএনপির সভাপতি গোলাম নবী আলমগীর - নয়া দিগন্ত

নির্বাচনী মাঠে লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড বিদ্যমান নেই। প্রধান নির্বাচন কমিশনার আপনি বার বার বলেন নির্বাচনী মাঠে লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড বিদ্যামান আছে, কিন্তু আপনি ভোলায় আসুন এবং দেখুন লেভেল প্লেয়িং ফিল্ডের অবস্থা। আজ বৃহস্পতিবার সাংবাদিক সম্মেলনে এসব কথা বলেন ভোলা-১ আসনে বিএনপি মনোনীত প্রার্থী ও জেলা বিএনপির সভাপতি গোলাম নবী আলমগীর। বৃহস্পতিবার সকালে ভোলা জেলা বিএনপি কার্যালয়ে এই সাংবাদিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।

সাংবাদিক সম্মেলনে তিনি বলেন, ভোলা-২, ৩ ও ৪ আসনের বিএনপি প্রার্থীরা তাদের নিজ বাসভবনে অবরুদ্ধ রয়েছেন। তারা নির্বাচনী প্রচার প্রচারণা চালাতে পারছেন না। বিএনপি নেতাকর্মীদের ওপর হামলা হচ্ছে, মামলা হচ্ছে।

তিনি আরো বলেন, আওয়ামী লীগ আচরণবিধি লঙ্ঘন করেও নির্বাচনী প্রচার প্রচারণা চালাতে পারবে, অন্যদিকে বিএনপি প্রচার প্রচারণার জন্য বেরই হতে পারবে না- এটা কেমন লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড। ভোলা-১ আসনে এ পর্যন্ত ১৭জন গ্রেফতার হয়েছে। বিভিন্ন হামলায় আহত হয়েছেন ৫০জন।

তিনি অভিযোগ করেন, বিএনপি নেতাকর্মী ও সমর্থকদের বাড়িতে হামলা চালানো হচ্ছে। এসব হামলার ঘটনায় সুষ্ঠু তদন্ত করে ও দোষীদের গ্রেফতার করে আইনের আওতায় আনার জন্য প্রশাসনের প্রতি আহ্বান জানান তিনি।

তিনি আরো অভিযোগ করেন, আওয়ামী লীগপন্থী লোকদের নির্বাচনী পোলিং এজেন্ট ও প্রিজাইডিং অফিসার করা হয়েছে। এসময় গোলাম নবী আলমগীর ভোলা জেলা পুলিশ সুপার ও ভোলা সদর থানার ওসিকে প্রত্যাহারের দাবি জানান।

এসময় সাংবাদিক সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন, জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক হারুনর রশিদ ট্রুম্যান, বিএনপির নির্বাহী কমিটির সদস্য হায়দার আলী লেলিন, জেলা বিএনপির সিনিয়র সহ-সভাপতি আমিনুল ইসলাম খান, যুগ্ম-সম্পাদক হুমায়ুন কবির সোপান, সাংগঠনিক সম্পাদক এনামুল হক, সদর থানা বিএনপির আহবায়ক আসিফ আলতাফ প্রমুখ।


আরো সংবাদ