১৭ জুন ২০১৯

বিএনপির চূড়ান্ত মনোনয়ন পেলেন খন্দকার মাহবুব

খন্দকার মাহবুব হোসেন - ছবি : সংগৃহীত

বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান ও সুপ্রিম কোর্ট বার অ্যাসোসিয়েশনের সাবেক সভাপতি ও বাংলাদেশ বার কাউন্সিলের সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান প্রবীণ আইনজীবী খন্দকার মাহবুব হোসেন বিএনপির চূড়ান্ত মনোনয়ন পেয়ে প্রার্থী হিসেবে বরগুনা-২ আসনে ধানের শীষ প্রতীক নিয়ে নির্বাচন করছেন। শনিবার রাত ১০টার দিকে বিএনপি ঘোষিত ১০ জনের মনোনয়ন তালিকায় অ্যাডভোকেট খন্দকার মাহবুব হোসেনের নাম এসেছে।

এর আগে গত ২৭ নভেম্বর বিএনপির চেয়ারপারসনের গুলশান কার্যালয় থেকে বরগুনা-২ আসনের দলীয় প্রার্থী হিসেবে তিনি মনোনায়নপত্র গ্রহণ করেন এবং বুধবার তারপক্ষে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে মনোনয়নপত্র জমা দেন পাথরঘাটা পৌর বিএনপির সিনিয়র সহসভাপতি অ্যাডভোকেট মনির হোসেন, অ্যাডভোকেট নাহিদ সুলতানা লাকি ও পাথরঘাটা উপজেলা ছাত্রদলের যুগ্ন আহ্বায়ক বাকিবিল্লাহ ফরাজী।

খন্দকার মাহবুব হোসেন বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার অন্যাতম আইনজীবী। দীর্ঘদিন থেকে তিনি খালেদা জিয়ার মুক্তি ও তার বিরুদ্ধে দায়ের করা সকল মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবির আন্দোলন সংগ্রামের অংশ নিয়ে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করছেন।

প্রবীণ আইনবিদ খন্দকার মাহবুব হোসেন দীর্ঘ ১২ বছর ধরে বরগুনা-২ আসন (বেতাগী, বামনা ও পাথরঘাটা) উপজেলায় তৃণমূল বিএনপি নেতাকর্মীদের নিয়ে কাজ করছেন এবং সাধারন মানুষের সুখ-দুঃখে পাশে দাঁড়াচ্ছেন ও গরিব-দুখীদের সাহায্য সহযোগিতা করছেন।

এবিষয়ে অ্যাডভোকেট খন্দকার মাহবুব হোসেন বলেন, দেশ আজ হত্যা নির্যাতন দুর্নীতিতে ছারখার হয়ে গেছে। মানুষকে এই নির্যাতনের হাত থেকে রক্ষা করার জন্য এবং তাদের ভোটের অধিকার আদায়ের করার জন্য জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট মাঠে নেমেছে। আমি আশা করব দেশকে এ সঙ্কট থেকে মুক্ত করার জন্য ঐক্যবদ্ধ ভাবে দেশবাসী আগামী নির্বাচনে ধানের শীষে ভোট দিবে। বিশেষ করে আমাদের দক্ষিনাঞ্চল শক্তিশালী রাজনৈতিক নেতৃত্বের অভাবে সম্পূর্ণভাবে অবহেলিত, ঘরে ঘরে বেকার সমস্য। যদি আমি নির্বাচিত হই, অবশ্যই এলাকার উন্নয়নসহ কল্যাণে বলিষ্ঠ ভূমিকা রাখব।


আরো সংবাদ