১৯ ডিসেম্বর ২০১৮

বরগুনায় বিএনপির বিক্ষোভে পুলিশের লাঠিচার্জ : আহত ৪

তাৎক্ষণিক প্রতিবাদ সমাবেশ
-

বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানকে ‘ফরমায়েশী’ দণ্ডাদেশের প্রতিবাদে বরগুনা জেলা বিএনপি শান্তিপূর্ণ বিক্ষোভ মিছিলে পুলিশ অতর্কিত লাঠিচার্জ করেছে। এতে চারজন আহত হয়।

আজ বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। এতে জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আ: হালিম, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক ও মহিলা দলের সভাপতি রিমা জামান, জেলা যুবদল সভাপতি জাহিদ হোসেন মোল্লা, জেলা তরুন দলের সভাপতি মো: মনিরুজ্জামান মিন্টুসহ বেশ কয়েকজন আহত হয়।

অপরদিকে এ হামলার প্রতিবাদে দলীয় কার্যালয়ে তাৎক্ষণিক প্রতিবাদ সমাবেশ করেন তারা।

জেলা বিএনপি সহ-সভাপতি এ জেড এম সালেহ ফারুকের সভাপতিত্বে এ প্রতিবাদ সমাবেশে বক্তব্য রাখেন, জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক অ্যাড. আ: হালিম, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মো: মঈনুল ইসলাম, মো: মনিরুজ্জামান মনির, তারিকুজ্জামান টিটু, সাংগঠনিক সম্পাদক মো: হুমায়ূন হাসান শাহীন, জাফর ভেন্ডার, দফতর সম্পাদক মনজুর মোর্শেদ খোকন, জেলা যুবদল সভাপতি জাহিদ হোসেন মোল্লা, জেলা তরুন দলের সভাপতি মনিরুজ্জামান মিন্টু, জেলা ছাত্রদলের সহ-সভাপতি মিসকাত সাজ্জাত, সাধারণ সম্পাদক নুরুল ইসলাম রনি প্রমুখ।

জেলা বিএনপির সাবেক সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক খন্দকার মহিদুল ইসলাম মোর্শেদ জানান, আমাদের শান্তিপূর্ণ বিক্ষোভ মিছিলে পুলিশের অতর্কিত হামলায় তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাই। আহতদের প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়েছে।

এবিষয়ে কেন্দ্রীয় বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান ও বরগুনা জেলা নেতা আইনজ্ঞ অ্যাড. খন্দকার মাহবুব হোসেন নয়া দিগন্তকে বলেন, গনতান্ত্রিক বিক্ষোভে পুলিশী অতর্কিত লাঠিচার্জ করা দুঃখজনক। শান্তিপূর্ণ কর্মসূচি পালনে বাধা দেয়া থেকে বিরত থেকে আইনের শাসন প্রতিষ্ঠায় পুলিশকে জনগণের আস্থা অর্জনের আহবান।

বরগুনা সদর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো: মাসুদুজ্জামান বলেন, পুলিশের কাজে বাধা দান করা বেআইনী কাজ। বিএনপির বিক্ষোভে পুলিশ অতর্কিত লাঠিচার্জ করেনি।


আরো সংবাদ