২১ জুলাই ২০১৯

তালতলীতে কিশোরী ধর্ষণের ঘটনায় ৬ জনের বিরুদ্ধে মামলা

-

তালতলীতে কিশোরী ধর্ষণের ঘটনায় ছয়জনের বিরুদ্ধে থানায় মামলা হয়েছে। শনিবার কিশোরীর মা কুলসুম বেগম বাদী হয়ে তালতলী থানায় মামলাটি দায়ের করেন।

জানা গেছে, ছোট বগী ইউনিয়নের গাবতলী গ্রামের এক কিশোরী কন্যাকে (১৪) বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে মেনী পাড়া গ্রামের আ: বারেক হাওলাদারের ছেলে আবুল কালাম গত দুই বছর ধরে দৈহিক সম্পর্ক করে আসছে।

গত ৪ মাস আগে আবুল কালাম কিশোরীকে পটুয়াখালী যৌনপল্লীতে বিক্রি করে দেয়। সেখান থেকে ১৫ দিন পরে কিশোরী পালিয়ে আসে। মেয়েটি আবুল কালামকে বিয়ের জন্য চাপ দিলে সে সম্পর্কের বিষয়টি অস্বীকার করে এবং স্থানীয় ভাবে বিষয়টি মীমাংসার নামে ধামাচাপা দেয়ার চেষ্টা করে।

বিষয়টি সাংবাদিকদের নজরে এলে গত ৩ সেপ্টেম্বর কয়েকটি জাতীয় ও স্থানীয় পত্রিকায় এ সংক্রান্ত প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়। ধর্ষিতার পরিবার মামলা দিতে চাইলে গত ৬ সেপ্টেম্বর রাত ১০টার দিকে কয়েকজন সহযোগী নিয়ে ধর্ষক কালাম মেয়েটিকে বাড়ি থেকে তুলে নিয়ে যায়। এরপর থেকে মেয়েটির আর কোনো খোঁজ পাওয়া যায়নি।

এ ঘটনায় গত ৮ সেপ্টেম্বর তালতলী থানায় কিশোরী ধর্ষণের ঘটনায় ছয়জনকে আসামি করে ধর্ষণ ও অপহরণের অভিযোগে মামলা হয়েছে।

তালতলী থানার অফিসার ইনচার্জ পুলক চন্দ্র রায় জানান, ধর্ষণের অভিযোগে অভিযুক্ত আবুল কালামসহ ছয়জনের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। আসামিদের গ্রেফতারের চেষ্টা অব্যাহত আছে।


আরো সংবাদ




gebze evden eve nakliyat instagram takipçi hilesi