২০ নভেম্বর ২০১৮

দুমকিতে বাকপ্রতিবন্ধীকে অটোরিক্সা প্রদান

শফিকের হাতে রিকসা তুলে দিচ্ছেন সংগঠনের নেতারা। - ছবি: নয়া দিগন্ত

পটুয়াখালীর দুমকিতে ‘আদর্শ পাংগাশিয়া সংগঠনের’ পক্ষ থেকে বাকপ্রতিবন্ধী শফিকুল ইসলাম (৩৫)কে অটোরিক্সা প্রদান করা হয়েছে। ৩০ আগস্ট রোজ বৃহস্পতিবার বিকাল ৫ ঘটিকায় ৭নং মধ্য পাংগাশিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সামনে আনুষ্ঠানিক ভাবে শফিকের হাতে অটোরিক্সাটি তুলে দেয়া হয় । এসময় উপস্থিত ছিলেন, আধুনিক লেখক ও কবি মোঃ আনোয়ার হোসেন বাদলসহ সংগঠনের সকল নেতৃবৃন্দ ।

সুত্র জানায়, উপজেলার ১নং পাঙ্গাশিয়া ইউনিয়নের ৫নং ওয়ার্ডের হতদরিদ্র প্রতিবন্ধী মো: শফিকুল ইসলাম পিতা-মৃত্যু আঃ মজিদ হাওলাদার, মাতা- মোসাঃ আছিয়া বেগম । শফিক একজন বাক প্রতিবন্ধী। সে ৮ বছর বয়সে তার বাবাকে হারায়। অসহায় শফিকের মা ভিক্ষা করে খাওয়া-পড়ার খরচ চালিয়ে শফিককে বড় করে তোলেন। শিক্ষাগত যোগ্যতা অক্ষর জ্ঞান সম্পন্ন।

এলাকার মানুষের সাহায্যে ও মায়ের ভিক্ষার মাধ্যমে চলে সংসার। বিয়ের ৬-৭ বছরের মাথায় শফিক ৪ সন্তানের বাবা হয়। গত বছর শফিকের বড় ছেলেটি পানিতে পড়ে মারা যায়।

ছেলেটি মারা যাওয়ার পর থেকেই শফিক কাজের প্রতি অমনোযোগী হয়ে পরে। বর্তমানে সংসারের অবস্থা খুবই খারাপ। কোন বেলা খেয়ে কোন বেলা না খেয়ে দিন কাটে। পাংগাশিয়ার একঝাঁক তরুণদের মাধ্যমে গঠিত একটি অরাজনৈতিক স্বেচ্ছাসেবী প্রতিষ্ঠান "আদর্শ পাঙ্গাশিয়া"। যারা হতদরিদ্র মানুষের সাহায্য করে। হঠাৎ ঐ তরুণদের নজর পরে শফিকের দিকে। তারা শফিকের পরিবারকে ভিক্ষা থেকে দূরে রাখার জন্য একটি ব্যাটারী চালিত রিক্সা দেওয়ার চিন্তা করে।

গত ৩০ আগস্ট রোজ বৃহস্পতিবার শফিকের হাতে একটি অটোরিক্সা তুরে দেয়া হয়। এ ছাড়াও সংগঠনের পক্ষথেকে একজন গরীব শিক্ষার্থীকে একাদশ শ্রেনীতে ভর্তি হওয়ার সম্পূর্ন খরচ দেয়া হয়। ষষ্ঠ, অষ্টম, নবম ও ডিগ্রী ১ম বর্ষের মোট ৫ জন গরীব শিক্ষর্থীদের বই কিনে দেয়া এবং আরও দুটি অসহায় পরিবারের ১ মাসের যাবতীয় বাজার সংগঠনের পক্স থেকে কিনে দেয়া হয়।


আরো সংবাদ