১৯ ডিসেম্বর ২০১৮

বাংলাদেশী পাসপোর্ট পেলেন লুসি হল্ট

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছ থেকে নাগরিকত্বের সনদ নেয়ার সময়।(ইনসেটে) লুসি হেলেনের পাসপোর্ট। -

অবশেষে বাংলাদেশী পাসপোর্ট হাতে পেয়েছেন বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধে বিশেষ অবদান রাখা বৃটিশ নাগরিক লুসি হেলেন ফ্রান্সিস হল্ট। বরিশাল নগরীর অক্সফোর্ড মিশনে লুসি হল্টের হাতে পাসপোর্টটি তুলে দিয়েছেন বানিজ্য মন্ত্রণালয়ের যুগ্ম সচিব শফিক জামান।
এসময় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন এনজিও কর্মকর্তা রহিমা সুলতানা কাজল, অক্সফোর্ড মিশনের কর্মকর্তা দিপালী বাইন। মঙ্গলবার সকালে লুসি হল্ট বলেন, আমি খুব উচ্ছাসিত বাংলাদেশী পাসপোর্ট হাতে পেয়ে। আমি এই বাংলার মাটিতেই মৃত্যুবরণ করবো এবং আমাকে এখানেই সমাহিত করার কথা বলেছি। কেননা এই দেশকে আমি অনেক ভালোবাসি। বাংলাদেশের নাগরিকত্ব পর এবার বাংলাদেশী পাসপোর্ট হাতে পেয়ে লুসি হল্ট প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতি গভীর কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন।
উল্লেখ্য, ইংল্যান্ডের নাগরিক ৮৮ বছর বয়সী লুসি হেলেন ফ্রান্সিস হল্ট ৫৭ বছর ধরে বাংলাদেশে বসবাস করে মানুষের সেবা করে আসছেন। মহান স্বাধীনতা যুদ্ধের সময় লুসি হল্ট যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধাদের সেবা দিয়েছেন। বর্তমানে তিনি বরিশাল নগরীর অক্সফোর্ড মিশনে বসবাস করছেন। চলতি বছরের ৮ ফেব্রুয়ারি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বরিশাল সফরে আসার পর নগরীর বঙ্গবন্ধু উদ্যানে বসে লুসি হল্টের হাতে ভিসা ফি মওকুফপত্র তুলে দিয়েছেন। সেসময় লুসি হল্ট প্রধানমন্ত্রীর কাছে জানিয়েছিলেন, ভিসার জন্য প্রতিবছর তাকে বিপুল পরিমান টাকা খরচ করতে হয়। তাই তিনি দ্বৈত নাগরিকত্ব চেয়েছিল। মানব দরদী লুসি হল্টের দাবির প্রেক্ষিতে ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আশ্বাসের চারদিন পরেই স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের আন্তঃমন্ত্রণালয়ের সভায় লুসি হল্টকে বাংলাদেশের নাগরিকত্ব দেয়ার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। পরবর্তীতে বাংলাদেশকে ভালোবেসে যুগের পর যুগ মানুষের সেবায় নিয়োজিত থাকা লুসি হেলেন ফ্রান্সিস হল্টের হাতে গত ৩১ মার্চ গণভবনে বাংলাদেশের নাগরিকত্বের সনদটি তুলে দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।


আরো সংবাদ