২১ মে ২০১৯

মসজিদে হামলাকারী একজন অস্ট্রেলীয় নাগরিক!

হামলার পর ঘটনাস্থলের পাশে পুলিশের সতর্ক অবস্থান - এএফপি

নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চে মসজিদে হামলা করা হয়েছে। এই হামলায় এখন পর্যন্ত কমপক্ষে ২৯ জন নিহত হয়েছেন বলে জানা গেছে। এ ঘটনায় এক নারীসহ চারজনকে আটক করেছে পুলিশ। তবে মসজিদে হামলায় প্রধান অভিযুক্ত একজন অস্ট্রেলীয় নাগরিক বলে জানা গেছে।

আটককৃত অভিযুক্ত অস্ট্রেলীয় নাগরিকের নাম ব্রেন্টন ট্যারেন্ট। তিনিসহ আরো একজন সন্ত্রাসী অস্ত্র নিয়ে এই হামলা চালায় বলে জানা গেছে। এ ঘটনায় বাংলাদেশ দলের ক্রিকেটারদের নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে।

এদিকে হামলায় এক নারীসহ তিন বাংলাদেশী নাগরিক গুলিবিদ্ধ হয়েছে বলে দাবি করেছে দেশটির কয়েকটি গণমাধ্যম।

এর আগে শুক্রবার স্থানীয় সময় দুপুরে ক্রাইস্টচার্চে মসজিদ আল নূরে সন্ত্রাসী হামলার ঘটনায় নিউজিল্যান্ড ও বাংলাদেশের মধ্যকার তৃতীয় টেস্ট ম্যাচটি বাতিল করা হয়। দুই দেশের ক্রিকেট বোর্ডের সমঝোতার ভিত্তিতে এই সিদ্ধান্ত নেয়া হয় বলে জানা গেছে। আগামীকাল শনিবার থেকে এই টেস্ট ম্যাচটি শুরুর কথা ছিল।

নিউজিল্যান্ড ক্রিকেট বোর্ডের অফিসিয়াল টুইট বার্তায়ও ক্রাইস্টচার্চ টেস্ট বাতিলের বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়েছে। বিবৃতিতে নিউজিল্যান্ড ক্রিকেট বোর্ড জানায়,‘ক্রাইস্টচার্চে আতঙ্কজনক পরিস্থিতিতে যারা পরিবার ও বন্ধুদের হারিয়েছেন, তাদের প্রতি আমাদের সমবেদনা। নিউজিল্যান্ড ক্রিকেট বোর্ড ও বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের যৌথ সিদ্ধান্তে ক্রাইস্টচার্চ টেস্ট বাতিল হয়েছে। দুই দলের ক্রিকেটাররা নিরাপদে আছেন।’

হামলার সময় মসজিদটির খুব কাছেই ছিলেন বাংলাদেশ দলের ক্রিকেটাররা। জুমার নামাজ আদায় করতে মসজিদ আল নূর-এ যাচ্ছিলেন ক্রিকেটাররা। তবে মসজিদে পৌঁছাতে ৫ মিনিট দেরি হওয়ায় হামলা থেকে বেঁচে যান ক্রিকেটাররা। এই ঘটনার পর ক্রিকেটাদের কেউই নিউজিল্যান্ডে থাকতে চাইছেন না বলে জানা গেছে।

এদিকে নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চে আল নুর মসজিদে সন্ত্রাসী হামলাকে ‘গুরুতর ঘটনা’ উল্লেখ করে সতর্ক অবস্থান নিয়েছে পুলিশ। সতর্কতামূলক ব্যবস্থা হিসেবে শহরের হাসপাতাল ও সব স্কুলে যে যেভাবে আছে, সেভাবেই ভেতরে থাকতে নির্দেশে দেয়া হয়েছে। বাসিন্দাদের বাসা থেকে বের না হতে নির্দেশ দিয়েছে পুলিশ। এ ছাড়া ঘটনাস্থল থেকে লোকজনকে দূরে থাকতে বলা হয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শী ব্যক্তিরা জানিয়েছেন, বন্দুক হামলার পর মসজিদ থেকে লোকজন আতঙ্কিত হয়ে ছোটাছুটি করতে থাকে। মসজিদের ভেতর কয়েকজনের প্রাণহানি ঘটেছে। তবে পুলিশের পক্ষ থেকে এখনো হতাহত ব্যক্তির সংখ্যা নিশ্চিত করা হয়নি।

স্থানীয় সময় বেলা দেড়টার দিকে মসজিদে নামাজ শুরুর ১০ মিনিটের মধ্যে একজন বন্দুকধারী সিজদায় থাকা মুসল্লিদের ওপর গুলি ছোড়ে। হামলাকারীর হাতে স্বয়ংক্রিয় রাইফেল ছিল। হামলা চালিয়ে বন্দুকধারী জানালার কাচ ভেঙে পালিয়ে যায়।

এদিকে শহরের আরো একটি মসজিদ থেকে লোকজনকে সরিয়ে নেয়া হয়েছে বলে খবর পাওয়া গেছে। ক্যাথেড্রাল স্কয়ারে হাজার খানেক শিশুর জলবায়ু পরিবর্তন মোকাবেলায় পদক্ষেপ নেয়ার দাবিতে শোভাযাত্রা হওয়ার কথা ছিল, সেখান থেকে লোকজনকে সরিয়ে নেয়া হয়েছে।

পুলিশ কমিশনার মাইক বুশ বলেছেন, ক্রাইস্টচার্চে একজন বন্দুকধারীর হামলার কারণে গুরুতর এবং উদ্ভূত পরিস্থিতির রূপ নিয়েছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের জন্য পুলিশ তার সর্বশক্তি নেয় কাজ করছে, কিন্তু এখনো এখানে অত্যন্ত উচ্চ ঝুঁকিপূর্ণ পরিবেশ বিরাজ করছে।


আরো সংবাদ

agario agario - agario