২২ সেপ্টেম্বর ২০১৯

আঙ্গুলের সংকেত ব্যবহার করে যেভাবে অপহরণ থেকে রক্ষা পেলেন এক তরুণী

চীনের একটি বিমানবন্দরে এক তরুণী আঙ্গুলের একটি বিশেষ ভঙ্গি দিয়ে ইঙ্গিত দিয়েছিল তিনি সমস্যায় পড়েছেন, তার সাহায্য দরকার। কিন্তু তিনি এমন এক বিশেষ পরিস্থিতিতে আছেন যার কারণে তিনি মুখে বলতে পারছেন না। তখন তরুণীটি হাতের আঙ্গুল দিয়ে ইংরেজিতে 'ওকে' সাইন দেখান।

সোস্যাল নেটওয়ার্কিং অ্যাপ টিকটকে ব্যাপক হারে শেয়ার করা এক ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে- ঐ তরুণী বিমানবন্দরে হেটে যাওয়ার সময় একজন অপরিচিত লোক তাকে পাহারা দিয়ে নিয়ে যাচ্ছে। মেয়েটি বিপদে পড়েছে কিন্তু সাহায্যের জন্য আঙ্গুল দিয়ে বোঝান তার সাহায্যের প্রয়োজন। আপাতদৃষ্টিতে এই সাইন দেখে মনে হবে সব 'ঠিক আছে' এমনটাই বোঝাতে চেয়েছেন তিনি।

কিন্তু আদতে তার উল্টো। কারণ সেটা ভালো করলে লক্ষ্য করলে ১১০ হয়। যেটা চীনের জরুরি সাহায্য নম্বর। এই সংকেত দেখে আশেপাশের মানুষ সচেতন হয়ে উঠে, তারা যে লোকটি তাকে পাহারা দিয়ে নিয়ে যাচ্ছিল তার সাথে তর্কে লিপ্ত হয়। এবং মেয়েটার কাছ থেকে জানতে পারে তাকে ইচ্ছার বিরুদ্ধে জোর করে নিয়ে যাওয়া হচ্ছিল। পরে মানুষজন মেয়েটাকে উদ্ধার করে তার বাবা-মায়ের কাছে পৌঁছে দেয়।

কিন্তু এই ঘটনায় চীনের সোস্যাল মিডিয়ায় বিরাট প্রতিক্রিয়া দেখা দিয়েছে একই সাথে দেশটির কর্তৃপক্ষকে চিন্তায় ফেলে দিয়েছে।

আঙ্গুলের সংকেত :

যেখানে বিশ্বব্যাপী 'ওকে' বা 'ঠিক আছে' বোঝাতে এই ভঙ্গিটি ব্যবহার করা হয়। সেখানে চীনে অন্য এক অর্থ দাড়ায় এই ভঙ্গির। যদি দুটি আঙ্গুল এক সাথে রাখা হয় তাহলে তা দেখতে ১১০ এর মত দেখায়। যেটা পুলিশের জন্য একটি জরুরি নম্বর।

যে ভিডিওটি ছড়িয়েছে সেখানে একজনকে বলতে দেখা যাচ্ছে, শিশুদের যেন এই সংকেতটি শেখানো হয়। ভিডিওর শেষে বলা হয়, এই সংকেত যেন ঘরে এবং বাইরে ছড়িয়ে দেয়া হয়। এবং কেউ বিপদে পড়লে তাৎক্ষনিকভাবে সেটা ব্যবহার করে।

কর্তৃপক্ষ কেন বিষয়টাকে পছন্দ করছে না?

ভিডিও দেখে মনে হচ্ছে জনসাধারণের উদ্দেশে সচেতনতামূলক এক ঘোষণা। ফলে অনেকে মনে করছেন এটা পুলিশের সমর্থনে করা হচ্ছে। চেংডু ইকনোমিক ডেইলি বলছে, টিকটকে শেয়ার করা ভিডিওটিতে প্রথমে ছবিসূত্র হিসেবে পুলিশের নাম ব্যবহার করা হয়েছিল। যাইহোক, ভিডিওটির আসল ছবিসূত্র অজানা। পরে কর্তৃপক্ষ এক বার্তায় জানিয়েছে, এই ভিডিওর সাথে পুলিশের কোন সম্পৃক্ততা নেই।

সতর্কসংকেত হিসেবে আঙ্গুলের এই সাইন অর্থহীন উল্লেখ করে কর্তৃপক্ষের বার্তায় আরো বলা হয়, "এই ধরণের কৌশল কখনোই প্রচার করা হয়নি"। তারা পুলিশের সাথে যোগাযোগের প্রচলিত পদ্ধতি ব্যবহারের আহ্বান জানায়।

তারা মনে করছেন এই ধরণের সংকেত দেয়াটা মানুষকে ভুল তথ্য দিতে পারে। তবে সোসাল মিডিয়া ব্যবহারকারীরা মনে করছে হাতের এই ভঙ্গি দেখিয়ে যদি বিপদের সংকেত পাশের মানুষকে জানানো যায় তাহলে মন্দ কি! সূত্র : বিবিসি।


আরো সংবাদ