২৫ মে ২০১৯

শ্রীলঙ্কায় হামলাকারীরা লেখাপড়া করে অস্ট্রেলিয়া-ব্রিটেনে

শ্রীলঙ্কায় খ্রিষ্টান সম্প্রদায়ের ধর্মীয় উৎসব ইস্টার সানডে পালনকালে তিনটি গির্জা ও তিনটি অভিজাত হোটেলে আত্মঘাতী বোমা হামলায় মৃতের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ৩৫৯। গতকাল বুধবার দেশটির পুলিশ এ কথা জানিয়েছে। হাসপাতালে চিকিৎসা নেয়া অবস্থায় আহত বেশ কয়েকজন মারা যায়। এতে মৃতের সংখ্যা বেড়ে গেছে। এই হামলায় অন্তত ৫০০ জন আহত হয়েছে।

সন্ত্রাসী সংগঠন আইএস এই বোমা হামলার দায়িত্ব স্বীকার করেছে। গোষ্ঠীটি নিজেদের দাবির পক্ষে কোনো প্রমাণ দেয়নি। তাদের দাবি যদি সত্য হয় তাহলে এটি হবে ইরাক ও সিরিয়ার বাইরে তাদের চালানো সবচেয়ে ভয়াবহ হামলার ঘটনা। তবে শ্রীলঙ্কার সরকার এই ঘটনার সাথে স্থানীয় চরমপন্থী সংগঠন ন্যাশনাল তাওহিদ জামাতের সম্পৃক্ততা রয়েছে বলে সন্দেহ করছে। সরকারের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, এই হামলা চালাতে সংগঠনটি ‘আন্তর্জাতিক’ সন্ত্রাসবাদীদের সহায়তা পেতে পারে। মঙ্গলবার রাতে শ্রীলঙ্কার প্রধানমন্ত্রী রনিল বিক্রমাসিংহে গণমাধ্যমকে বলেন, ‘এই ঘটনার সাথে বিদেশের সংশ্লিষ্টতা রয়েছে এবং কিছু প্রমাণ সে দিকেই ইঙ্গিত দিচ্ছে।’ তিনি আরো বলেন, ‘আমরা এই ঘটনার সাথে আইএসের সম্পৃক্ততা রয়েছে বলে সন্দেহ করছি।’

শ্রীলঙ্কার প্রতিরক্ষা প্রতিমন্ত্রী জানিয়েছেন, গত রোববার ইস্টার সানডে উদযাপনের সময় গির্জা ও হোটেলে ভয়াবহ বোমা হামলার ঘটনায় জড়িতদের মধ্যে একজন অস্ট্রেলিয়া ও ব্রিটেনে পড়াশোনা করেছেন। আইএসের কর্মকাণ্ড থেকে উৎসাহিত হয়ে এবং সন্ত্রাসবাদীদের অর্থায়নে এই হামলা চালানো হয়েছে বলে উল্লেখ করেন প্রতিরক্ষা প্রতিমন্ত্রী রুয়ান বিজেবর্ধন। আরো হামলা হতে পারে বলে আশঙ্কাও ব্যক্ত করেছেন তিনি।

স্থানীয় সময় বুধবার এক সংবাদ সম্মেলনে রুয়ান বিজেবর্ধন বলেন, আমাদের ধারণা আত্মঘাতী হামলাকারীদের একজন ব্রিটেনে লেখাপড়া করেছেন। পরে তিনি অস্ট্রেলিয়া থেকে উচ্চতর ডিগ্রি অর্জন করেন। এরপরেই শ্রীলঙ্কায় স্থায়ীভাবে বসবাস শুরু করেন। আত্মঘাতী হামলাকারীদের বেশির ভাগেরই বিভিন্ন দেশের সাথে সম্পৃক্ততা ছিল, কেউ কেউ বিদেশে বসবাস করছিল বা সেখানে পড়াশোনা করেছে বলে নিশ্চিত করেছেন রুয়ান বিজেবর্ধন।

আত্মঘাতী হামলাকারীদের ওই দলটির বেশির ভাগই শিক্ষিত এবং তারা মধ্যবিত্ত বা উচ্চ মধ্যবিত্ত পরিবারের। তারা অর্থনৈতিকভাবে সচ্ছল এবং তাদের পারিবারিক অবস্থাও ভালো বলে ধারণা করা হচ্ছে। এটা একটি চিন্তার বিষয় বলে উল্লেখ করেছেন রুয়ান বিজেবর্ধন। তিনি বলেন, আমার ধারণা হামলাকারীদের মধ্যে বেশ কয়েকজন বিভিন্ন দেশে পড়াশোনা করেছে। তারা বিভিন্ন দেশ থেকে উচ্চ শিক্ষায় শিক্ষিত হয়েছেন, ডিগ্রিও অর্জন করেছেন।

ওই বোমা হামলায় জড়িত সন্দেহে এ পর্যন্ত ৬০ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে বলে জানিয়েছে দেশটির কর্তৃপক্ষ। মঙ্গলবার রাতে শ্রীলঙ্কার প্রেসিডেন্ট মাইথ্রিপালা সিরিসেনা ‘২৪ ঘণ্টার মধ্যে’ প্রতিরক্ষা বাহিনীগুলোর প্রধানদের পরিবর্তন করার ঘোষণা দিয়েছেন। তিনি জানিয়েছেন, হামলার আশঙ্কা প্রকাশ করে রিপোর্ট দেয়া হলেও সেগুলো তার সাথে শেয়ার করা হয়নি, কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে ‘কঠোর পদক্ষেপ’ নেয়ার অঙ্গীকার করেছেন তিনি।

জাতির উদ্দেশে ভাষণে তিনি বলেছেন, ‘আগামী সপ্তাহগুলোতে পুলিশ ও নিরাপত্তা বাহিনীগুলোকে ঢেলে সাজাব। আগামী ২৪ ঘণ্টার মধ্যে প্রতিরক্ষা বাহিনীগুলোর প্রধানদের পরিবর্তন করতে চাই। নিরাপত্তা কর্মকর্তারা বিদেশী একটি রাষ্ট্রের কাছ থেকে গোয়েন্দা রিপোর্ট পাওয়ার পরও সেটি আমাকে জানাননি। এসব কর্মকর্তার বিরুদ্ধে কঠোর পদক্ষেপ নেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছি।’

এক সংবাদ সম্মেলনে অপরাধীদের শনাক্ত করার পথে তদন্তের অগ্রগতি হওয়ার কথা জানিয়েছেন শ্রীলঙ্কার প্রধানমন্ত্রী রনিল বিক্রমাসিংহে। তিনি বলেছেন, ‘আমরা আইএসের দাবি খতিয়ে দেখব, আমাদের বিশ্বাস সম্ভবত কিছু সম্পর্ক আছে’।


আরো সংবাদ

Instagram Web Viewer
agario agario - agario
hd film izle pvc zemin kaplama hd film izle Instagram Web Viewer instagram takipçi satın al Bursa evden eve taşımacılık gebze evden eve nakliyat Canlı Radyo Dinle Yatırımlık arsa Tesettürspor Ankara evden eve nakliyat İstanbul ilaçlama İstanbul böcek ilaçlama paykasa