২৬ মে ২০১৯

এ কেমনতর বিয়ের প্রস্তাব : সম্মতি দিলেন প্রেমিকাও

ইয়াশান তাকাহাসি ও নাৎসুকি - ছবি : সংগৃহীত

বেশিরভাগ মানুষেরই জীবনের গতিপথ পাল্টে যায় বিয়ের মাধ্যমে। তাই অনেকেই বিষয়টা উপভোগ করতে চান একটু ব্যতিক্রমীভাবে। বিয়ের আয়োজনটা যেমন অনেকে ভিন্ন করতে চান, তেমনি অনেকে চান স্থানটা হোক ভিন্ন, আবার অনেকে চান বিয়ের প্রস্তাবটাই হোক না অন্যদের চেয়ে ভিন্নতর। জাপানের এক যুবক এ প্রচেষ্টাতেই করে ফেলেন ভিন্ন ধরনের এক রেকর্ড।

টোকিওর শিল্পী ইয়াসুশি ইয়াশান তাকাহাসি তার প্রেমিকা নাৎসুকিকে বিয়ের প্রস্তাব দিয়েছেন জাপানের গোটা হোক্কাইডো দ্বীপ জুড়ে। পুরো দ্বীপজুড়ে লিখে দিয়েছেন ‘ম্যারি মি’। এতে কোনো রঙ খরচ হয়নি। খরচ হয়েছে তেল। আর ছয়টি মাস। কারণ এ ‘ম্যারি মি’ লেখাটি তিনি কোনো রং তুলি দিয়ে লেখেননি, লিখেছেন গুগল ম্যাপ আর জিপিএস লোকেটর দিয়ে।

৩১ বছর বয়সী ইয়াশান ছয় মাস সময়ের মধ্যে হোক্কাইডো দ্বীপে ৪,৪৫১ মাইল রাস্তা পার করেছেন ‘ম্যারি মি’ লেখার জন্য। ২০০৮ সাল থেকে তিনি এই শিল্পকর্ম করছেন। এর আগে শান্তির প্রতীক পায়রার ছবি এঁকেছিলেন এই পদ্ধতিতে।

ইয়াশান প্রথমে কাগজের ম্যাপ দেখে নিজের গন্তব্য ঠিক করে নিতেন। ঠিক করে নিতেন কোথায় কোথায় জিপিএস লোকেটর অন করবেন, কোথায় অফ রাখবেন। সেই মত গাড়িতে সব ব্যবস্থা করে জিপিএস ডিভাইস নিয়ে বেরিয়ে পড়েন। জিপিএস অন করা অবস্থান গুগল ম্যাপে রেকর্ড হতে থাকে হলুদ রংয়ের রেখা বা বিন্দু দিয়ে। এ ভাবেই লিখে বা এঁকে ফেলতে পারেন যা ইচ্ছে।

কিন্তু যার জন্য এত কষ্ট করেছেন ইয়াশান, তার জবাবটা শেষ পর্যন্ত কেমন হলো? পাগল বলে ঠেলে দিলেন, না কি অন্য কিছু? হ্যাঁ, দ্বিতীয়টাই ঠিক। তার এ ভালোবাসাময় কষ্ট দেখে নাৎসুকি বলে দেন, ইয়েস।

 

আরো পড়ুন : বর নিয়ে টানাটানি
নয়া দিগন্ত অনলাইন, ১০ এপ্রিল ২০১৯, ১৪:৪৩

নতুন জীবনে প্রবেশ করতে যাচ্ছেন, বরের সাজে উপস্থিত হয়েছেন বিয়ের আসরে। এমন অবস্থায় যদি হঠাৎ করে টানাটানির শিকার হন বেচারা নতুন বর তাহলে কী বিব্রতকর অবস্থার সৃষ্টি হতে পারে তার প্রমাণ পেয়েছেন বেচারা চীনের এক বর। তার ওই ভোগান্তির ভিডিও ফুটেজ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়ে গেছে।

জানা গেছে, প্রেমিকের কাছে প্রত্যাখ্যাত হলেও হাল ছাড়েননি এক প্রেমিকা। প্রেমিক বিয়ের পিঁড়িতে বসতে যাবেন শুনে নিজেকে সামলাতে না পেরে নিজেই কনের সাজে উপস্থিত হন এক চীনা নারী। তারপর বিয়ের মঞ্চেই বর পড়ে যান টানাটানির মধ্যে। বিয়ের মঞ্চে ঘটে যাওয়ার ওই ভিডিও এখন সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল।

ওই ভিডিওতে দেখা যায়, বিয়ের অনুষ্ঠানের এক পর্যায়ে বর-কনে দাঁড়িয়ে ছিলেন মঞ্চে। হঠাৎ করে কনের সাজে আচমকা বিয়ের মঞ্চে প্রবেশ করেন বরের সাবেক প্রেমিকা। মঞ্চে উঠেই তিনি প্রেমিকের হাত ধরে টানতে থাকেন। বেশ জোর-জবরদস্তিই করা হচ্ছিল মঞ্চ থেকে তাকে নামিয়ে নিতে। কিন্তু প্রেমিক তখন নতুন জীবনের দিকেই দৃষ্টি দিতে আগ্রহী ছিল। ফলে সাবেক সঙ্গিনীর দিকে তিনি ভ্রুক্ষেপও করছিলেন না। তাই জোর করে সাবেক এ প্রেমিকার কাছ থেকে হাত ছাড়িয়ে নেন ওই বর। এ অবস্থায় মাথায় হাত দিয়ে মঞ্চেই বসে পড়েন ওই নারী।

এরপর আবার যখন কনের নিকটবর্তী হতে যাচ্ছিলেন বেচারা বর, তখনই শেষ চেষ্টা হিসেবে আবারো বরের জামা টেনে ধরেন ওই নারী। এতক্ষণ বিষয়টি সহ্য করে যাচ্ছিলেন কনে। কিন্তু এবারের টানাটানির পর ধৈর্য হারান তিনি। এক পর্যায়ের বরের হাত থেকে নিজের হাত ছাড়িয়ে মঞ্চ ছেড়ে বেরিয়ে যান তিনি। অপ্রস্তুত অবস্থায় পড়া প্রেমিকও তখন নববধূর পিছন পিছন ছুটতে থাকেন। আর সাবেক প্রেমিকা তখন বিয়ের মঞ্চে বসে বসে কাঁদছেন।

ভিডিওটি প্রথম প্রকাশ করেছিলেন বিনোদন বিষয়ক একজন ব্লগার। এর পর মুহূর্তেই সেই ভিডিও ছড়িয়ে পড়ে। এই ভিডিওটি ব্যাপক সাড়া ফেলেছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে।


আরো সংবাদ




Instagram Web Viewer
agario agario - agario
hd film izle pvc zemin kaplama hd film izle Instagram Web Viewer instagram takipçi satın al Bursa evden eve taşımacılık gebze evden eve nakliyat Canlı Radyo Dinle Yatırımlık arsa Tesettürspor Ankara evden eve nakliyat İstanbul ilaçlama İstanbul böcek ilaçlama paykasa