১৭ জুন ২০১৯

আফগানিস্তানে নিয়ন্ত্রণ হারাচ্ছে সরকার, জোরালো হচ্ছে তালেবান : মার্কিন প্রতিবেদন

আফগানিস্তান
আফগান সৈন্যদের প্রশিক্ষণ - ছবি : নিউ ইয়র্ক টাইমস

আফগানিস্তান সরকারের দেশটির ভূমি এবং জনসংখ্যার ওপর নিয়ন্ত্রণ হারানো অব্যাহত রয়েছে এবং ২০১৮ সালে এ ক্ষেত্রে আরো নিয়ন্ত্রণ হারিয়েছে। এ ছাড়া, আফগানিস্তানে তালেবানের অবস্থান আরো জোরালো হচ্ছে বলেও মার্কিন এক সরকারি প্রতিবেদনে স্বীকার করা হয়েছে। খবর নিউ ইয়র্ক টাইমসের।

বৃহস্পতিবার মার্কিন কংগ্রেসে পেশ করার জন্য এ প্রতিবেদন তৈরি করেছে স্পেশাল ইন্সপেক্টর জেনারেল আফগানিস্তান রিকন্সট্রাকশন বা এসআইজিএআর। প্রতিবেদনে বলা হয়, আফগানিস্তানের জনসংখ্যার অন্তত ১.৭ শতাংশ বা পাঁচ লাখ মানুষ এবং ভূমির অন্তত ২ শতাংশের ওপর নিয়ন্ত্রণ হারিয়েছে কাবুল সরকার।

দেশটির প্রায় তিন কোটি ৩০ লাখ মানুষের মধ্যে ২ কোটি ১২ লাখ মানুষ আফগান সরকার নিয়ন্ত্রিত এলাকায় বসবাস করেন। এর আগে দেয়া প্রতিবেদনের সঙ্গে তুলনা করে এ হিসাব দেয়া হয়।

এতে আরো বলা হয়েছে, এ কথা বলার কোনো উপায়ই নেই যে, মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের নতুন কৌশল আফগানিস্তানে স্থিতিশীলতা ফিরিয় আনছে। যুদ্ধবিধ্বস্ত দেশটির জন্য দক্ষিণ এশিয়া সংক্রান্ত নতুন কৌশল গত বছর বাস্তবায়ন করেছেন ট্রাম্প।

আফগানিস্তান থেকে পাঠানো এক প্রতিবেদনের বরাত দিয়ে এসআইজিএআরের প্রতিবেদনে আরো বলা হয়েছে, দেশটির ভেতর থেকে জোরালো সমর্থন না পেলে আফগানিস্তানে নিরাপত্তা নিশ্চিত বা পুনর্গঠনের কাজ করা একক ভাবে আমেরিকার পক্ষে সম্ভব হবে না।

আফগান প্রেসিডেন্ট আশরাফ গণি গত মাসে জানিয়েছিলেন, ২০১৪ সালের সেপ্টেম্বর থেকে এ পর্যন্ত ৪৫ হাজার আফগান পুলিশ ও সৈন্য নিহত হেয়েছে। এ সময়ে আমেরিকান বা সহযোগী সৈনিক মারা গেছেন ৭২ জন।

আফগান কর্মকর্তারা বলছেন, এ সংঘর্ষে তালেবান বিদ্রোহী নিহত হয়েছে প্রায় সমান বা আরো অধিক সংখ্যক। কিন্তু এ বক্তব্যের পেছনে সাক্ষ্য-প্রমাণ কমই রয়েছে।


আরো সংবাদ