২১ নভেম্বর ২০১৮

আমি এখনো দৃঢ়চেতা, আমি এখনো সংগ্রাম করতে পারি : আনোয়ার ইব্রাহিম

আনোয়ার ইব্রাহিম। ছবি - সংগৃহীত

মালয়েশিয়ার রাজনৈতিক নেতা আনোয়ার ইব্রাহিম এই বলে ঘোষণা দেন যে, তিনি পাকতান হারপান এবং দেশের জনগণকে সেবা দিতে পুরোপুরি প্রস্তুত। 

তিনি বলেন, রাজনীতি থেকে দূরে ছিলাম। এটি আসলে দীর্ঘ একটি সময়। তবে পাকতান হারপানের অন্যান্য বন্ধুদের সাথে নিয়ে দেশের জন্য সংগ্রাম করার সময় এখন খুব কাছে। আমিই আনোয়ার ইব্রাহিম এবং আমি এখনো দৃঢ়চেতা। আমি এখনো সংগ্রাম করতে পারি। ৬১ বছরের পুরনো একটি সরকারকে পরিবর্তন করা অতটা সহজ কাজ নয় কিন্তু আমি এই সংগ্রামে আপনাদের সাথে থাকব।’

মালয়েশিয়ার একটি চীনা মন্দির কর্তৃক আয়োজিত হাংরি ঘোস্ট ফেস্টিভালে এ অংশ নিয়ে ৭১ বছর বয়সী এই রাজনীতিবিদ এসব কথা বলেন। এতে অন্যদের মধ্যে, মালয়েশিয়ার বালাকং রাজ্যের উপনির্বাচনে পাকতান হারপানের প্রার্থী উং সো কি এবং ডেমোক্রেটিক একশন পার্টির সচিব ইয়ান ইয়ং হাইয়ান ওহা উপস্থিত ছিলেন। বালাকাং রাজ্যের এমপি এডি নং তিয়েন চি চলতি বছরের ২০ জুলাইয়ে মারা যাওয়ায় সেখানকার আসনটি খালি হয়ে পড়ে।

রাজ্যটির উপনির্বাচনে বিজয়ী হওয়ার জন্য উং সো কি কে মালয়েশিয়া চায়নিজ অ্যাসোসিয়েশনের প্রার্থী তান চি তেওংয়ের সাথে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে হবে। আনোয়ার ইব্রাহিম শনিবারে রাজ্যটিতে অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া নির্বাচনে পাকাতান হারপানের প্রার্থীকে বিজয়ী করার জন্য ভোটারদের প্রতি আহ্বান জানান। আনোয়ার ইব্রাহিম বলেন, ‘বর্তমানে আমার অনেক সহকর্মী মন্ত্রিসভায় রয়েছেন। তারা দুর্নীতি দমন এবং সমস্যার সমাধানের জন্য কঠোর পরিশ্রম করছেন।’

তিনি জনগণের প্রতি আহ্বান জানিয়ে আরো বলেন, ‘আপনাদের জন্য এভাবে কঠোর পরিশ্রম করার জন্য তাদেরকে সুযোগ দান করুন, শনিবারের আসন্ন নির্বাচনে আমাদের তরুণ প্রার্থীকে বিজয়ী করে সমস্যাগুলোকে নির্মূল করার সুযোগ দিন।’

 

আরো দেখুন : ইসলাম কোনো কঠোর ধর্ম নয়, ইসলামে সমঝোতা ও বিবেচনা কাজ করে : মাহাথির

মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী মাহাথির মোহাম্মদ বলেছেন, এটা প্রদর্শন করা খুবই গুরুত্বর্পূণ যে ইসলাম কোনো কঠোর ধর্ম নয়। কঠোরতার পথ দেখায় না ইসলাম। যখন আমরা কোনো কাজ শুরু করি তখন মহান আল্লাহর নাম নিয়ে বিসমিল্লাহির রহমানির রাহিম বলে শুরু করি। মন্ত্রিপরিষদের সিদ্ধান্ত হলো এবং আমরা আশা করি ইসলামের বিষয়ে আমাদেরকে আরো সতর্ক হতে হবে। দেখাতে হবে যে, ইসলাম এমন একটি ধর্ম যেখানে সমঝোতা ও বিবেচনা কাজ করে।

গত ৩ আগস্ট সোমবার মালয়েশিয়ার টেরেংগানু প্রদেশে সমকামিতার অভিযোগে অভিযুক্ত দুই যুবতীকে জনসম্মুখে বেত্রাঘাত করা হয়েছে। এই ইস্যুতে মাহাথির মোহাম্মদ বলেন, ওই দুই যুবতীকে বেত্রাঘাত করায় ইসলামিক ন্যায়বিচার প্রতিফলিত হয়নি। দেশটির মন্ত্রিপরিষদ মনে করে, টেরেংগানু প্রদেশে সমকামিতার অভিযোগে অভিযুক্ত দুই যুবতীকে বেত্রাঘাতের বিষয়ে একটি নেতিবাচক প্রভাব পড়েছে। এতে ইসলামকে কেউ কেউ অন্য দৃষ্টিতে দেখতে পারেন।


তিনি আরো বলেন, এ ইস্যুতে মন্ত্রিপরিষদ ৫ আগস্ট বুধবার আলোচনা করেছে। সেখানে বলা হয়েছে, এই শাস্তির মধ্য দিয়ে ন্যায়বিচারের মানদণ্ড প্রতিফলিত হয়নি। এমনকি ইসলামের প্রতি সহানুভূতি প্রকাশ পায়নি। মন্ত্রিপরিষদ মনে করে ওই যুবতীরা যা করেছিলেন তা ছিল তাদের প্রথম অপরাধ। তাই প্রথমে তাদেরকে উপদেশ দেয়া ছিল বেশি যথাযথ। তাই তাদেরকে প্রথমেই বেত্রাঘাতের শাস্তি দেয়া উচিত হয়নি।

বৃহস্পতিবার এ বিষয়ে একটি ভিডিও পোস্ট করে মাহাথির মোহাম্মদ বলেন, আমরা মনে করি ঘটনা যদি এমনই হয় তখন সুনির্দিষ্ট অবস্থার প্রেক্ষিতে কিছু বিবেচনা রাখা উচিত। সেখানে ইসলামের অধীনে আমরা হালকা শাস্তি দিতে পারি।


আরো সংবাদ