২৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

উত্তর কোরিয়ার বিশাল সামরিক কুচকাওয়াজ

উত্তর কোরিয়ার ৭০তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীর অনুষ্ঠানে অংশ নেয়া বেসামরিক নাগরিকরা। সামরিক কুচকাওয়াজের কোন ছবি প্রকাশ করা হয়নি। - ছবি : সংগ্রহ

৭০তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে বিশাল আকারের সামরিক কুচকাওয়াজ আয়োজন করেছে উত্তর কোরিয়া। তবে পূর্বে দেয়া কথা মতোই এই কুচকাওয়াজেকোনো ধরনের ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্রের প্রদর্শন করা হয়নি। রোববার রাজধানী পিইয়ংইয়ংয়ে অনুষ্ঠিত হয়েছে ওই কুচকাওয়াজ।

উত্তর কোরিয়ার এই বিশাল কুচকাওয়াজ নিয়ে ব্যাপক আলোচনা হচ্ছে বিশ্ব মিডিয়ায়। কোরীয় উপদ্বীপকে পারমাণবিক নিরস্ত্রীকরণে কিম জং উনের দেয়া অঙ্গীকার ও প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে ক্ষেপণাস্ত্রের প্রদর্শনী না হওয়ায় দেশটির অস্ত্রভাণ্ডার ও প্যারেড অনুষ্ঠান নিয়ে ব্যাপক বিশ্লেষণ চলছে। অনেকেই অঙ্গীকার রক্ষার জন্য প্রশংসা করছে কিমের।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সাথে সিঙ্গাপুরে ঐতিহাসিক বৈঠকের পর কিম জং উন সমরাস্ত্রের প্রদর্শনী সীমিত করবেন বলে কিছু বিশ্লেষক ভবিষ্যদ্বাণী করেছেন। প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর এ আয়োজনে অস্ত্র প্রদর্শন না করার মাধ্যমে উত্তর কোরিয়া এটা প্রমাণ করতে চাচ্ছে যে পারমাণবিক নিরিস্ত্রীকরণের যে প্রতিশ্রুতি তারা দিয়েছে সেটা পূরণ করা হচ্ছে।

কোরীয় উপদ্বীপকে পারমাণবিক নিরস্ত্রীকরণের লক্ষ্যে গত ১২ জুন কিম জং উন এবং মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের মধ্যে সিঙ্গাপুরে একটি অস্পষ্ট চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়। কিন্তু সে চুক্তিতে নির্দিষ্ট সময়সীমা বা কি পদ্ধতিতে পারমাণবিক নিরস্ত্রীকরণ কার্যক্রম পরিচালনা করা হবে সেবিষয়ে বিস্তারিত কোনো কিছুই বলা হয়নি।


আরো সংবাদ

Hacklink

ofis taşıma Instagram Web Viewer

canli radyo dinle

Yabanci Dil Seslendirme