১৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

ভারত-মিয়ানমার ফ্রেন্ডশিপ!

ভারত-মিয়ানমার ফ্রেন্ডশিপ! - সংগৃহীত

ভারত-মিয়ানমার আন্তর্জাতিক সীমান্তে ‘ফ্রেন্ডশিপ ব্রিজ’ চালু হলো। ব্রিজের পাশাপাশি বুধবার আনুষ্ঠানিকভাবে উদ্বোধন করা হয়েছে ভারত-মিয়ানমার নবনির্মিত সড়কপথেরও। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন উভয় দেশেরই ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা।

ভারতের সাথে মিয়ানমারের সীমান্ত থাকলেও দুর্গম পথের কারণে সড়কপথে উভয় দেশের যোগাযোগ সীমিত। তবে নতুন পথের উদ্বোধন হওয়ায় এবার তা সহজ হবে এবং উভয় দেশের বাণিজ্য সম্পর্ক ও বন্ধুত্ব জোরদার হবে বলে ধারণা করছেন বিশ্লেষকরা।

ভারতের মণিপুর রাজ্যে ইমফল থেকে ১১০ কিমি দূরে সীমান্তবর্তী শহর মোরেহ থেকে শুরু হয়েছে এই ফ্রেন্ডশিপ সড়কপথের। ইতোমধ্যে ভারত সরকার মোরেহ-কে দেশের অন্যতম ইমিগ্রেশন চেক পোস্ট হিসেবে ঘোষণা করেছে।

মিয়ানমারের সাথে ভারতের একমাত্র সীমান্ত সড়কটি চালু হওয়াতে আগামীতে ভারতীয়দের মিয়ানমার যাওয়া সহজ হবে। কোনো বিশেষ ছাড়পত্রের প্রয়োজন হবে না।

মণিপুরের পরিবহন কমিশনার এম লক্ষ্মীকুমার জানিয়েছেন, যাদের কাছে বৈধ পাসপোর্ট থাকবে তাদের মোরেহ থেকেই ভিসা দেওয়া হবে। এর আগে দু’দেশের নাগরিকদেরই অন্য দেশের মাত্র ১৬ কিমি পর্যন্ত ঘুরতে যাওয়ার অনুমতি মিলত।

সেতুটির উদ্বোধনীতে উচ্ছ্বসিত ভারতের কনসাল জেনারেল নন্দন সিং ভাইসোরা জানিয়েছেন, ‘ভারত-মিয়ানমারের মধ্যে সুসম্পর্ক স্থাপনের এক ঐতিহাসিক সূচনা হলো আজ।’ 


আরো সংবাদ

Hacklink

ofis taşıma