১৯ জুন ২০১৮

আইন প্রত্যেকের জন্যই সমান: আনোয়ার ইব্রাহিম

আইন প্রত্যেকের জন্যই সমান: আনোয়ার ইব্রাহিম - সংগৃহীত

মালয়েশিয়ার পিকেআর নেতা আনোয়ার ইব্রাহিম বলেছেন, আইন বিষয়ে যেকোনো বিতর্কে মুসলিমদের মতো অমুসলিমরাও অংশ নেয়ার অধিকার রাখেন। যখন কিছু আইন কেবল মুসলিমদের উপর প্রভাব বিস্তার করে, তখন অনিবার্যভাবে তা অমুসলিমদেরও প্রভাবিত করে।

সম্প্রতি ‘দ্য স্টার’ এবং ‘সিনার হেরিয়ান’কে দেয়া একটি দীর্ঘ সাক্ষাত্কারে তিনি এসব কথা বলেন।

শরিয়া আদালতের সংশোধনের জন্য মালয়েশিয়ার ইসলামিক পাটির সভাপতি আবদুল হাদি আওয়াং এর প্রস্তাবিত বিলের সমালোচনা করে তিনি বলেন, ‘তারা (বিলের সমর্থকরা) বলছে যে আমরা সবাই মুসলিম এবং এ বিষয়ে অন্যদের বিরক্ত করা উচিত নয়। কিন্তু এ নিয়ে অমুসলিমদের বিরক্ত করার অধিকার আছে।’

তিনি বলেন, ‘কোনো আইন, যদিও এটি কেবলমাত্র মুসলমানদেরকেই প্রভাবিত করে বলে মনে হয়, তা অনিবার্যভাবে অমুসলিমদেরকেও প্রভাবিত করবে এবং এই কারণে এ বিষয়ে তাদের অংশগ্রহণের অধিকার রয়েছে।’

আনোয়ার বলেন, ‘যেসব বিষয়কে মাইনর ইস্যু বলে মনে হয়, অনেক সময় সেসব ইস্যুতে অমুসলিমরা উদ্বিগ্ন থাকেন। কারণ তাদের ভয়- শেষ পর্যন্ত এটি তাদের উপর প্রভাব ফেলবে।’

সরকারের ব্যয় সম্পর্কে যা বললেন আনোয়ার ইব্রাহিম
ফ্রিডম মালয়েশিয়া টুডে ডটকম

মালয়েশিয়ার পিকেআর নেতা আনোয়ার ইব্রাহিম বলেছেন, কেউ যখন নিজেকে প্রকাশ করতে চান, তখন তাকে অবশ্যই শ্রদ্ধা ও শালীনতা বজায় রাখা উচিত। নতুন এই প্রশাসনে মালয়েশীয় রাজাদের প্রশংসা পেতে আমাদেরকে কঠোর পরিশ্রম করতে হয়েছে।

দেশটির রাজা ইয়াং ডিপারতুন অং-এর তত্ত্বাবধান ও রক্ষণাবেক্ষণে দেশটির ফেডারেল সরকারের মাত্রাতিরিক্ত ব্যয় সম্পর্কে দেশটির খ্যাতিমান সাংবাদিক কাদির জাসিনের মন্তব্যের কঠোর সমালোচনা করেছেন তিনি।

 পিকেআরের একটি অনুষ্ঠানে বক্তব্য প্রদানকালে আনোয়ার বলেন, হারাপান শাসকরা রাজার বিরুদ্ধে ছিল, মালয়েশীয়দের সাংবিধানিক অধিকারের শর্ত উপেক্ষা করছে, মালয়েশিয়ার জাতীয় ভাষা ও ইসলামের বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়েছিল। এসব থেকে পরিত্রাণ পেতে আমি মালয়েশীয় শাসকদের সাথে বৈঠক অব্যাহত রাখবো।

কাদির তার ব্যক্তিগত ব্লগে প্রকাশিত একটি নিবন্ধে রাজা ইয়াং ডিপারতুন অং-এর তত্ত্বাবধান ও রক্ষণাবেক্ষণের জন্য অতিরিক্ত ব্যয় নিয়ে প্রশ্ন তোলার পর আনোয়ারের তরফ থেকে এই মন্তব্য আসে।কাদির মন্তব্যের বিষয়টি উল্লেখ করে আনোয়ার বলেন, শাসকদের সুযোগ প্রদানের সুস্পষ্ট ব্যাখ্যা ছাড়া অপমানজনক মন্তব্য করা কোনো ব্যক্তির সুস্থ অবস্থা প্রকাশ করে না।’

কাদির প্রধানমন্ত্রী মাহাথিরের উপদেষ্টা ডাইম জায়নুদ্দিনের একজন ঘনিষ্ঠ হিসেবে পরিচিত। তিনি বিশিষ্ট ব্যক্তিদের উপদেষ্টা কাউন্সিলের একজন উপদেষ্টাও। কাদির ১৯৮০ ও ১৯৯০-এর দশকে ‘নিউ স্ট্রেইটস টাইমস’ এর প্রধান সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। 

অন্যদিকে মালয়েশিয়ার জাতীয় ভাষা হিসেবে ‘বাহাসা মেলায়া’র অবস্থান নিয়ে কোনো মহলের সাথে কোনো ধরনের আপস করা হবে না বলে জানিয়েছেন ‘পিআরকে’ নেতা আনোয়ার ইব্রাহিম। রাষ্ট্রীয় সকল কাজে দেশটির জাতীয় ভাষাকে সমুন্নত রাখার ব্যাপারে পাকাতান হারাপান জোট আশ্বাস দিয়েছে বলে তিনি জানান।

কাম্পাঙয়ে অনুষ্ঠিত এক অনুষ্ঠানে ইব্রাহিম জানান, ‘বাহাসা মেলায়া’ ভাষার অবস্থান নিয়ে কয়েকটি রাজনৈতিক দলের উদ্বেগের পর পিএইচ’র পক্ষ থেকে এই আশ্বাস দেয়া হয়েছে। আনোয়ার বলেন, ‘ফেডারেল বা রাজ্য পর্যায়ের সকল আনুষ্ঠানিক কার্যক্রমে জাতীয় ভাষাকে প্রাধান্য দেয়া হবে।’

তিনি আরো বলেন, ‘যাইহোক, আমরা যদি সফল হতে চাই এবং ইংরেজী ভাষায় আমাদের দখল শক্তিশালী করতে চাই, সেজন্য আমাদের অবশ্যই খোলা মনের অধিকারি হতে হবে।’

ম্যান্ডারিন আন্তর্জাতিক বাণিজ্যে কতটা গুরুত্বপূর্ণ ভাষা হয়ে উঠেছে- সে সম্পর্কে জিজ্ঞাসা করা হলে আনোয়ার জনগণকে পরামর্শ দিয়ে বলেন, আমরা মালয়, চীনা বা ভারতীয় যেটাই হই না কেন, আমাদের সন্তানদের ভাষা শেখায় নিরুৎসাহিত করা উচিৎ হবে না।


আরো সংবাদ