বিবিধ

সন্ত্রাসীদের প্রশিক্ষণ দেয়ার ভয়ঙ্কর পরিকল্পনা ফাঁস!

আমেরিকার পক্ষ থেকে প্রশিক্ষিত সন্ত্রাসীরা সিরিয়ার মধ্যাঞ্চলীয় হোমস প্রদেশের ঐতিহাসিক পালমিরা শহরে হামলা চালানোর প্রস্তুতি নিচ্ছে বলে খবর দিয়েছে রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়। ওই মন্ত্রণালয় বলেছে, সিরিয়া থেকে আটক সন্ত্রাসীরা এই গোপন পরিকল্পনার কথা ফাঁস করে দিয়েছে।

এক বছর আগে পালমিরা শহরটি বিদ্রোহীদের কাছ থেকে পুনরুদ্ধার করে সিরিয়ার সেনাবাহিনী। তুরস্ক-সমর্থিত ‘ফ্রি সিরিয়ান আর্মি’র সাথে সংশ্লিষ্ট ‘লায়ন্স অব দ্যা ইস্ট আর্মি’ গোষ্ঠীর আটক দুইজন এ তথ্য জানিয়েছে বলে খবর দিয়েছে রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়। তারা জানিয়েছে, তারা মার্কিন নেতৃত্বাধীন সামরিক জোটের ‘তানাফ’ ঘাঁটি থেকে পালমিরা যাওয়ার পথে সিরিয়ার সেনাবাহিনীর হাতে বন্দি হয়েছেন।

আটক একজন জানিয়েছেন, মার্কিন সেনা কর্মকর্তারা তাদেরকে সামরিক প্রশিক্ষণ দিয়েছেন এবং মার্কিন সেনা ঘাঁটি থেকে তাদেরকে অস্ত্র সরবরাহ করা হয়েছে। তাদের দায়িত্ব ছিল পালমিরা যাওয়ার পথের বিভিন্ন জনপদে বিক্ষিপ্ত হামলা চালিয়ে জনগণের মধ্যে ভীতি তৈরি করা যাতে আগামী এক সপ্তাহের মধ্যে ৩০০ জনের একটি শক্তিশালী দল অতর্কিত হামলা চালিয়ে পালমিরা শহরটি দখল করে নিতে পারে।

মার্কিন সরকার সিরিয়ায় এক সময়ে তৎপর বিদ্রোহীদের বিরোধী যুদ্ধ করার অজুহাতে দেশটিতে সেনা পাঠায়। রাশিয়ার সামরিক সহযোগিতা ও ইরানের সামরিক উপদেষ্টাদের পরামর্শ নিয়ে সিরিয়ার সেনাবাহিনীই দেশটি থেকে তাদেরকে উচ্ছেদ করেছে। সিরিয়ার উত্তরাঞ্চলীয় রুকবান শরণার্থী শিবিরের কাছে মার্কিনীদের ‘তানাফ’ সামরিক ঘাঁটি অবস্থিত।

সিরিয়া নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রকে সতর্ক বার্তা রাশিয়ার
রয়টার্স, ৩১ আগস্ট ২০১

‘সিরিয়ার বিরুদ্ধে ভিত্তিহীন ও অবৈধ আগ্রাসনের’ বিষয়ে যুক্তরাষ্ট্রকে সতর্ক করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রে নিযুক্ত রাশিয়ার রাষ্ট্রদূত আনাতোলি আন্তোনোভ। যুক্তরাষ্ট্র সিরিয়ার ওপর নতুন হামলা চালানোর প্রস্তুতি নিচ্ছে বলে আভাস পাওয়ার পর মস্কোর উদ্বেগের কথা তুলে ধরে চলতি সপ্তাহের প্রথম দিকে তিনি মার্কিন কর্মকর্তাদের সতর্ক করেছেন বলে জানিয়েছেন।

রাশিয়ার দূতাবাস নিজেদের ফেসবুক পেজে জানিয়েছে, চলতি সপ্তাহে সিরিয়াবিষয়ক যুক্তরাষ্ট্রের বিশেষ প্রতিনিধি জেমস জেফ্রিসহ মার্কিন কর্মকর্তাদের সাথে বৈঠক করেছেন আন্তোনোভ। পৃথক এক বিবৃতিতে যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র হেদার নওয়ার্ট সিরিয়াবিষয়ক নতুন মার্কিন প্রতিনিধি জেফ্রির সাথে যুক্তরাষ্ট্রে নিযুক্ত রাশিয়ার রাষ্ট্রদূত আন্তোনোভের বৈঠক হয়েছে বলে জানিয়েছেন। সাত বছরেরও বেশি সময় ধরে চলা সিরিয়ার গৃহযুদ্ধে রাশিয়া সিরিয়ার প্রেসিডেন্ট বাশার আল আসাদকে সমর্থন দিচ্ছে। 

প্রধানত রুশ বাহিনীর সহায়তায় আসাদ অনুগত সিরীয় বাহিনী বিদ্রোহীদের নিয়ন্ত্রণে থাকা বেশির ভাগ এলাকা পুনরুদ্ধার করেছে। অপর দিকে যুক্তরাষ্ট্র প্রধানত বাশারবিরোধী বিদ্রোহী সংগঠন ফ্রি সিরিয়ান আর্মিকে সমর্থন দিয়েছে আসছে, যারা দেশটির উত্তর ও উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় এলাকাগুলোতে নিজেদের নিয়ন্ত্রণ ধরে রেখেছে।

আরো সংবাদ