শেষের পাতা

আন্তর্জাতিক মানদণ্ডে সড়ক নেই ঢাকায় দুই সিটির ২৫ শতাংশ রাস্তাই বেদখলে

আন্তর্জাতিক মানদণ্ড অনুযায়ী কোনো রাজধানী শহরে মোট ২৫ শতাংশ সড়ক থাকতে হবে। কিন্তু রাজধানী ঢাকায় সেই পরিমাণ সড়ক নেই। এখানে অলিগলিসহ আছে মাত্র ৭ শতাংশ। মেইন রোড আছে ৩ শতাংশ। এই ৩ ভাগের ৩০ শতাংশ দখল হয়ে আছে। বর্তমানে ঢাকার জনসংখ্যা এক কোটি ৫০ লাখ। জনসংখ্যা অনুযায়ী ঢাকায় সড়ক বাড়েনি। সড়ক অবকাঠামো নির্মিত না হওয়া জনসাধারণের যাতায়াত ও চলাফেরা কষ্টসাধ্য হয়ে দাঁড়িয়েছে। বিদ্যমান রাস্তাও মানসম্পন্ন ও পর্যাপ্ত নয় বলে পরিকল্পনা কমিশনের ভৌত অবকাঠামো বিভাগের এক প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে।
সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, বাংলাদেশ মধ্যম আয়ের দেশের পথে থাকলেও তার রাজধানীর সড়কের পরিমাণ আন্তর্জাতিক মানদণ্ডে নেই। জনসংখ্যা বৃদ্ধির সাথে অবকাঠামোর যে উন্নয়ন হচ্ছে তার সাথে সড়ক অবকাঠামো নির্মিত না হওয়া জনসাধারণের যাতায়াত ও চলাফেরা কষ্টসাধ্য হয়ে দাঁড়িয়েছে। শহরের মধ্যে সড়ক দুর্ঘটনা বৃদ্ধি এবং দুর্বিষহ ট্রাফিক জ্যাম এখন নগরবাসীর নিত্যসঙ্গী হয়েছে। অপর্যাপ্ত রাস্তা ছাড়াও বিদ্যমান রাস্তার অনেক অংশই ভাঙা ও পর্যাপ্ত প্রশস্ত নয়। বিভিন্ন স্থানে সংযোগ সড়ক না থাকায় যানজটের সৃষ্টি হচ্ছে প্রতিনিয়ত। পাশাপাশি ড্রেনেজ সুবিধা না থাকায় জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হচ্ছে। আর এটি ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনে বেশি।
সিটি করপোরেশনের উত্তর অংশে ৯১ দশমিক ৫২ অংশ রাস্তা উন্নয়ন ও নির্মাণ করার প্রস্তাব দিয়েছে সংস্থাটি। ড্রেন নির্মাণ করতে হবে ১২২ দশমিক ০৬ কিলোমিটার। ফুটপাথ করতে হবে ৮৩ দশমিক ৭২ কিলোমিটার। এসব কাজ করতে ব্যয় ধরে প্রকল্প প্রস্তাবনা পাঠানো হয়েছে ৬৯৮ কোটি ৮১ লাখ ৩৪ হাজার টাকার।
এ দিকে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের সম্প্রতি জাতীয় সংসদে দেয়া তথ্যানুযায়ী, একটি আধুনিক নগরীতে মোট আয়তনের ২০ থেকে ২৫ শতাংশ রাস্তা বা সড়ক থাকা দরকার। কিন্তু ঢাকায় আছে মাত্র ৭ থেকে ৮ ভাগ রাস্তা। প্রয়োজনের মাত্র এক-তৃতীয়াংশ সড়ক আছে এ শহরে। ঢাকা নগরীর মোট এলাকা এক হাজার ৩৫৩ বর্গকিলোমিটার। ঢাকার বর্তমান রাস্তার আয়তন দুই হাজার ২০০ কিলোমিটার; যার মধ্যে ২১০ কিলোমিটার প্রধান সড়ক। কলকাতা শহরের আয়তন এক হাজার ৪৮০ বর্গকিলোমিটার এবং লন্ডন শহরের আয়তন এক হাজার ৫৮০ বর্গকিলোমিটার। জনসংখ্যার ঘনত্বের চেয়ে কলকাতা শহরে রাস্তার পরিমাণ মাত্র ৬ শতাংশ বলে সংশ্লিষ্টদের ওয়েবসাইট থেকে জানা গেছে।
পরিকল্পনা কমিশনের আইএমইডি ঢাকা সিটি করপোরেশনের ক্ষতিগ্রস্ত রাস্তা, নর্দমা ও ফুটপাথ উন্নয়ন প্রকল্পের ওপর সম্প্রতি দেয়া এক প্রতিবেদনে এসব তথ্য প্রকাশ করেছে। প্রতিবেদনের তথ্যানুযায়ী, ঢাকার দুই সিটি করপোরেশনের পরিসংখ্যান মতে, রাজধানীতে বর্তমানে ১৬৩ কিলোমিটার ফুটপাথ রয়েছে। এর মধ্যে ১০৮ দশমিক ৬০ কিলোমিটার ফুটপাথই এখন অবৈধ দখলে। আর দুই হাজার ২৮৯ দশমিক ৬৯ কিলোমিটার সড়ক রয়েছে নগরীতে। এখানে বেদখলে রয়েছে ৫৭২ দশমিক ৪২ কিলোমিটার রাস্তা। আবার লোকাল বা স্থানীয় পর্যায়ের রাস্তায় কোনো ফুটপাথ নেই। যেগুলো আছে তার ৮৭ শতাংশই পথচারীদের চলাচলের উপযোগী নয়।

 

আরো সংবাদ