১৪ অক্টোবর ২০১৯

ট্রাম্প ‘আন্তর্জাতিক সংঘবদ্ধ অপরাধী চক্রের’ সদস্য

ল্যাতিন আমেরিকার দেশ ভেনিজুয়েলা মার্কিন সরকারকে ‘আন্তর্জাতিক ডাকাত’ বলে অভিহিত করেছে। ওয়াশিংটন আমেরিকায় অবস্থিত ভেনিজুয়েলার সব সম্পদ বাজেয়াপ্ত করার নির্দেশ দেয়ার পর কারাকাস এ মন্তব্য করল।

ভেনিজুয়েলার আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিষয়ক মন্ত্রী উইলিয়াম ক্যাস্টিলো তার দেশের বিরুদ্ধে আমেরিকার সর্বশেষ আরোপিত কঠোর নিষেধাজ্ঞার তীব্র জানিয়ে ওই মন্তব্য করেন। তিনি মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পকে ‘সংঘবদ্ধ অপরাধী চক্রের সদস্য’ এবং ‘আন্তর্জাতিক দস্যু’ বলে অভিহিত করেন।

ট্রাম্প গতকাল (মঙ্গলবার) আমেরিকায় অবস্থিত ভেনিজুয়েলার সকল সম্পদ বাজেয়াপ্ত করার নির্দেশ দেন। ভেনিজুয়েলার নির্বাচিত প্রেসিডেন্ট নিকোলাস মাদুরোকে ক্ষমতাচ্যুত করার চেষ্টায় ব্যর্থ হয়ে অর্থনৈতিক সন্ত্রাসবাদের আশ্রয় নিলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প।

এর ফলে পশ্চিম গোলার্ধের কোনো দেশের বিরুদ্ধে গত ৩০ বছরের মধ্যে এই প্রথম মার্কিন সরকার এমন ব্যবস্থা নিল। ট্রাম্পের নির্দেশের কারণে ভেনিজুয়েলা সরকারের সঙ্গে কোনো মার্কিন কোম্পানি বা প্রতিষ্ঠান কোনো রকমের লেনদেন করতে পারবে না।

প্রেসিডেন্ট মাদুরোর বিরুদ্ধে ভেনিজুয়েলার সামরিক বাহিনীকে বিদ্রোহী করে তোলার নানামুখী তৎপরতা ব্যর্থ হওয়ার পর দেশটির ওপর অবরোধ আরোপের হুমকি দিয়েছিলেন ট্রাম্প। এর কয়েকদিন পর তিনি ভেনিজুয়েলা সরকারের যাবতীয় সম্পত্তি জব্দ করার নির্দেশ দেন। মাদুরো শুক্রবার বলেছিলেন, এ ধরনের পদক্ষেপ নিলে তা হবে বেআইনি এবং তার দেশের জনগণ জবাব দেয়ার জন্য প্রস্তুত।

সূত্র : পার্স টুডে


আরো সংবাদ




astropay bozdurmak istiyorum