১৭ জুলাই ২০১৯

নদীতে ভেসে উঠল বাবা-মেয়ের নিথর দেহ, মর্মান্তিক ছবি দেখে আঁতকে উঠল বিশ্ববাসী

মেয়েকে নিজের টি-শার্টের ভিতরে ঢুকিয়ে রেখেছিলেন। স্রোতে দুই বছরের মেয়ে যেন কোনওভাবেই ভেসে না যায়! কিন্তু তিনিই শেষ পর্যন্ত তলিয়ে গেলেন ছোট্ট মেয়েকে নিয়ে। শেষ রক্ষা হল না। মর্মান্তিক ছবি দেখে আঁতকে উঠল বিশ্ববাসী। আরও একবার প্রকাশ্যে এল বিশ্বজুড়ে শরণার্থীদের দুর্দশার ছবি।

এমন ঘটনা ফের একবার উস্কে দিল সিরিয়ার ছোট্ট অ্যালান কুর্দির মৃত্যুর স্মৃতি। সমুদ্রের পাড়ে মুখ থুবড়ে পড়ে ছিল অ্যালানের ছোট্ট দেহ। তার সেই মর্মান্তিক পরিণতি কাঁদিয়েছিল বিশ্ববাসীকে। ফের একবার যেন হাজার হাজার শরণার্থী অ্যালান কুর্দির কথা মনে করিয়ে গেল আরও এক ছবি।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও মেক্সিকোর সীমান্ত ঘটল এমন মর্মান্তিক ঘটনা। ২৫ বছর বয়সী অস্কার অ্যালবার্তো তার দুবছরের মেয়ে ও স্ত্রীকে নিয়ে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের দিকে আসার চেষ্টা করেছিলেন। যার জন্য ঝুঁকিপূর্ণ পথ বেছেছিলেন তিনি। রিও গান্ডে নদীতে পার হওয়ার চেষ্টা করেন তিনি। কিন্তু নদীর স্রোতে ভেসে যান অ্যালবার্তো। সঙ্গে তার মেয়েরও একই পরিণতি হয়।

মেক্সিকো-মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র সীমান্তে বহুদিন থেকেই অশান্তি চলছে। একের পর এক শরণার্থী শিবিরের সমস্যার কথাও বেরিয়ে আসছিল। অ্যালবার্তো সংসার চালাতে পারছিলেন না। শারণার্থী শিবিরেও ঠাঁই পাচ্ছিলেন না তিনি। তাই বাধ্য হয়েই মেয়ে ও স্ত্রীকে নিয়ে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের পথে পাড়ি দেন তিনি। শেষ পর্যন্ত স্ত্রীকে পাড়ে তুলতে পারলেও অ্যালবার্তো ভেসে যান। পরে তার ও মেয়ের নিথর দেহ ভেসে ওঠে নদীর জলে।

অ্যালবার্তোর মা জানিয়েছেন, তিনি বারবার ছেলেকে বারণ করেছিলেন। শেষ পর্যন্ত নাতনি ও ছেলের এমন পরিণতিতে তিনি ভেঙে পড়েছেন। নাতনির একের পর এক খেলনা হাতে নিয়ে কেঁদে চলেছেন তিনি। এল সালভাদরের বাসিন্দা অ্যালবার্তোর এমন মর্মান্তিক পরিণতিতে শোকস্তব্ধ মেক্সিকোর প্রেসিডেন্ট ম্যানুয়েল লোপেজ ওবরাডর।


আরো সংবাদ




gebze evden eve nakliyat instagram takipçi hilesi