২২ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট নির্বাচন : প্রথম পর্বে কট্টর ডানপন্থী প্রার্থী জয়ী

ব্রাজিল
ব্রাজিলের সশস্ত্র বাহিনীতে জেইর বোলসোনারোইর যথেষ্ট সমর্থন রয়েছে - ছবি : বিবিসি

ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের প্রথম পর্বে কট্টর ডানপন্থী প্রার্থী জাইর বোলসোনারো জয়ী হয়েছেন।

সরাসরি জয়ী হওয়ার জন্য ৫০ শতাংশ ভোট না পাওয়ায় তাকে আগামী ২৮ অক্টোবর দ্বিতীয় রাউন্ডে বামপন্থী ওয়ার্কার্স পার্টির প্রার্থী ফার্নান্দো হাদাদের মুখোমুখি হতে হচ্ছে।

রোববার অনুষ্ঠিত নির্বাচনের প্রথম পর্বের ভোটে বলসোনারো ৪৬ শতাংশ ও তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বামপন্থি প্রার্থী ফের্নান্দো হাদাজ ২৯ শতাংশ ভোট পেয়েছেন, জানিয়েছে বিবিসি।

দ্বিতীয় পর্বে দুই এগিয়ে থাকা প্রার্থীর মধ্যে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই হবে বলে নির্বাচন পূর্ব জরিপগুলোতে আভাস পাওয়া গেছে।

প্রথম দফায় জয়ী হওয়ার পর জেইর বোলসোনারোই বলেন, তিনি নিশ্চিত ছিলেন ইলেকট্রনিক ভোটিং পদ্ধতি ব্যবহারের কারণে সমস্যা না হলে প্রথম দফায় তিনিই সরাসরি বিজয়ী হতেন।

ফলাফল ঘোষণার পর এক বিবৃতিতে এই প্রেসিডেন্ট প্রার্থী বলেন, আমি নিশ্চিত যদি এ ঘটনা না ঘটত তাহলে প্রজাতন্ত্রের প্রেসিডেন্টের নাম আজ রাতেই আমরা জানতে পারতাম। তবে নির্বাচনে কি সমস্যা হয়েছিল বলে তার মনে হয়েছে সে বিষয়ে স্পষ্ট কিছু বলেননি তিনি।

অপরদিকে, ব্রাজিলের নির্বাচনী কর্তৃপক্ষ বলছে, বড় ধরনের কোনো সমস্যা ছাড়াই শান্তিপূর্ণভাবে ভোট সম্পন্ন হয়েছে।

নির্বাচনী প্রতিশ্রুতিতে ঐতিহ্যগত পারিবারিক মূল্যবোধগুলো রক্ষার প্রতিশ্রুতি দিয়ে বহু ইভানজেলিক্যাল খ্রিস্টানের মন জয় করে নিয়েছিলেন প্রার্থী বোলসোনারো। পাশাপাশি আইন ও এর প্রয়োগের বিষয়ে তার অবস্থানের কারণে বহু ভোটারের মনে এ ধারণা তৈরি হয়েছে যে তিনি ব্রাজিলকে নিরাপদ করে তুলতে পারবেন, ফলে তাদের সমর্থনও পেয়েছেন তিনি।

নির্বাচনী প্রচারণায় বন্দুকের মালিকানার আইন শিথিল করা ও মৃত্যুদণ্ড ফিরিয়ে আনার পক্ষে কথা বলেছেন তিনি।

অপরদিকে বোলসোনারোর পদ্ধতি ও ‘বাগাড়ম্বরের’ বিরোধীতাকারীদের কাছে নিজেকে একজন বিশ্বাসী প্রার্থী হিসেবে তুলে ধরেছেন হাদাজ।

প্রথম পর্বের ফলাফল প্রকাশের পর প্রতিক্রিয়ায় তিনি বলেছেন তার দল ওয়ার্কার্স পার্টি ‘শুধু বির্তক ব্যবহার করবে, কোনো বন্দুক নয়’।


আরো সংবাদ




Hacklink

ofis taşıma Instagram Web Viewer

canli radyo dinle

Yabanci Dil Seslendirme