২১ জুলাই ২০১৯

কলম্বিয়াকে আবারো দুষলেন মাদুরো

-

ভেনিজুয়েলার প্রেসিডেন্ট নিকোলাস মাদুরো তাকে হত্যাচেষ্টার জন্য সোমবার আবারো কলম্বিয়ার প্রেসিডেন্টকে দুষলেন।

মধ্যরাতের পরপর টুইটারে পোস্ট করা একটি ভিডিও বার্তায় ৫৫ বছর বয়সী মাদুরো বলেন, সেনা ও পুলিশ সদস্যরা তাকে হত্যা প্রচেষ্টার সঙ্গে জড়িত কয়েকজন ষড়যন্ত্রকারীকে আটক করেছে। তারা এখন প্রধান হোতাকে ধরতে অভিযান চালাচ্ছে। খবর বার্তা সংস্থা এএফপি’র।

ভেনিজুয়েলার প্রেসিডেন্ট বলেন, ‘এই ঘটনার সঙ্গে কলম্বিয়ার বিদায়ী প্রেসিডেন্ট জুয়ান ম্যানুয়েল সান্টোশের জড়িত থাকার পর্যাপ্ত প্রমাণ রয়েছে।’

তিনি ‘এ ব্যাপারে আগামী কয়েক ঘন্টার মধ্যে প্রমাণ প্রকাশ করার’ প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন।

তার এই অভিযোগকে কেন্দ্র করে ইতোমধ্যেই কারাকাস ও বোগোটার মধ্যে উত্তেজনা দেখা দিয়েছে। দেশ দুটির মধ্যে সম্পর্ক তলানীতে গিয়ে ঠেকেছে।

সান্টোশ তার বিরুদ্ধে আনা অভিযোগ নাকচ করে দিয়েছেন। মঙ্গলবার তিনি তার উত্তরসূরী ইভান ডুকের কাছে ক্ষমতা হস্তান্তর করবেন। ইভান দেশটির প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হয়েছেন।

শনিবার ভেনিজুয়েলার রাষ্ট্রীয় টেলিভিশনে সরাসরি সম্প্রচারিত এক অনুষ্ঠানে দেখা গেছে, বিস্ফোরণের কারণে মাদুরো তার ভাষণ মাঝপথে থামিয়ে দেন এবং সংশয়ে তাকিয়ে থাকেন।

এ সময় উপস্থিত বেশ কয়েকজন সৈন্যের মধ্যেও আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে।

মাদুরো ও তার সরকার জানায়, তাকে হত্যার উদ্দেশ্যেই দুটি ড্রোন বিমানে করে এই বিস্ফোরণ ঘটানো হয়েছে।

এ ব্যাপারে বিভিন্ন সূত্র থেকে সাংঘর্ষিক বক্তব্য আসছে।

মাদুরো প্রশাসন জানিয়েছে, কলম্বিয়া ভেনিজুয়েলার সরকার বিরোধী ‘কট্টর ডানপন্থী’ সংগঠনের সঙ্গে যোগসাজশে এ হামলা চালিয়েছে। এছাড়াও এই ষড়যন্ত্র কার্যকর করতে যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডা থেকে অজ্ঞাত পরিচয়ে অর্থ যোগান দেয়া হয়েছে।
তবে তার এই অভিযোগে পক্ষে কোন প্রমাণ দেখানো হয়নি।

উল্লেখ্য, ভেনিজুয়েলা থেকে বহিষ্কৃত কয়েক হাজার লোক কলম্বিয়া ও ফ্লোরিডায় বাস করছে।


আরো সংবাদ




gebze evden eve nakliyat instagram takipçi hilesi