২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮

নাইটক্লাবে পদপিষ্ট হয়ে নিহত ১৭

নাইটক্লাবে পদপিষ্ট হয়ে নিহত ১৭ - সংগৃহীত

ভেনিজুয়েলার রাজধানী কারকাসে একটি নাইটক্লাবে পদপিষ্ট হয়ে ১৭ জনের মৃত্যু হয়েছে৷ মৃতদের মধ্যে আটজন নাবালক৷ জানা গেছে, নাইটক্লাবে পার্টি চলাকালীন আগুন লেগে যায়৷ হুড়োহুড়ি করে বের হতে  গিয়ে পদপিষ্ট হয়ে মারা যান তারা৷ মৃতদের সবার বয়স ২৩ বছরের নিচে৷

শনিবার ঘটে ঘটনাটি৷ ভেনিজুয়েলার স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী নেস্টর রেভেরল সাংবাদিকদের জানান, কারাকাসের একটি নাইট ক্লাবে গ্র্যাজুয়েশন পার্টি চলছিল৷ তখনই আগুন ধরে যায়৷ প্রাণভয়ে বাঁচতে গিয়ে পদপিষ্ট হয়ে অনেকের মৃত্যু হয়েছে৷ আহত শতাধিক৷ তাদের বেশ কয়েকজনকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে৷ নাইটক্লাবে সেই সময় ৫০০ জন পার্টি করছিলেন৷ মৃতদের মধ্যে আটজন নাবালক৷

এই ঘটনায় সাত জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে৷ নাইটক্লাবটি বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে৷ ক্লাব মালিককে গ্রেফতার করা হয়েছে৷ মর্মান্তিক ঘটনার পর একাধিক গাফিলতি সামনে এসেছে৷ প্রাথমিক তদন্তের পর জানা গেছে, ওই ক্লাবে কোনও আপদকালীন বের হওয়ার পথ নেই৷

তবে লাতিন আমেরিকার এই দেশটিতে কোনও কর্মাশিয়াল বাড়িতে সাধারণত আপদকালীন দরজা দেখা যায় না৷ কারণ অনেক ক্রেতাই বিল না মিটিয়ে আপদকালীন দরজা দিয়ে পালিয়ে যায়৷ সেটা বন্ধ করতে কেউ এমার্জেন্সি দরজা ব্যবহার করে না৷

 কারাকাসে আগেও নাইটক্লাবে পার্টি করতে এসে পদপিষ্ট হয়ে মারা যাওয়ার নজির রয়েছে৷ ২০০২ সালে লা গুয়াজিরা নামে একটি ক্লাবে আগুনের জেরেই পদপিষ্ট হয়ে ৫০ জনের মৃত্যু হয়৷

সীমান্ত উত্তেজনা : ফের রাষ্ট্রদূত তলব ভেনিজুয়েলা ও কলম্বিয়ার
এএফপি

কলম্বিয়া ও ভেনিজুয়েলা আলোচনার জন্য আবার নিজ নিজ রাষ্ট্রদূতদের তলব করেছে। প্রায় এক সপ্তাহ আগে কারাকাস তাদের অভিন্ন সীমান্ত বন্ধ করে দেয়ায় দুই দেশের মধ্যে শুরু হওয়া উত্তেজনা বৃদ্ধির প্রেক্ষাপটে রাষ্ট্রদূতদের তলব করা হলো।

ভেনিজুয়েলার প্রেসিডেন্ট নিকোলা মাদুরো গত শুক্রবার অনির্দিষ্টকালের জন্য সীমান্ত বন্ধ রাখার নির্দেশ দেন। একটি হামলার ঘটনায় চারজন আহত হওয়ার পর সীমান্ত অঞ্চলের একটি অংশে জরুরি অবস্থা ঘোষণা করা হয়েছে। কলম্বিয়ার প্রেসিডেন্ট জুয়ান ম্যানুয়েল সান্তোস বৃহস্পতিবার বলেন, তার দেশে যা ঘটেছে তা বিশ্বকে জানাতে চায়। কারণ এটা পুরোপুরি অগ্রহণযোগ্য।

তিনি বলেন, ভেনিজুয়েলার যে সীমান্ত শহরে হামলার ঘটনা ঘটেছে সে এলাকা পরিদর্শনে কলম্বিয়ার এক কর্মকর্তাকে অনুমতি দেয়া সংক্রান্ত একটি চুক্তি করতে কারাকাস ব্যর্থ হওয়ার পর তিনি তার দূতকে তলবের সিদ্ধান্ত নেন।

সান্তোস আরো বলেন, তিনি তার পররাষ্ট্রমন্ত্রীকে দক্ষিণ আমেরিকার আঞ্চলিক নিরাপত্তা জোট ইউএনএএসইউআরের পররাষ্ট্রমন্ত্রীদের একটি বিশেষ বৈঠক ডাকার নির্দেশ দিয়েছেন। এর কিছুক্ষণ পর ভেনিজুয়েলার পররাষ্ট্রমন্ত্রী ডেলসি রডরিগুয়েজ ঘোষণা দেন, আলোচনার জন্য কলম্বিয়ায় নিযুক্ত দূতকে তলব করা হয়েছে।

তিনি এক টুইটার বার্তায় বলেন, নিকোলা মাদুরোর নির্দেশনার ভিত্তিতে কলম্বিয়ায় আমাদের দূত ইভান রিনকনকে তলব করা হয়েছে। সীমান্ত বন্ধ করে দেয়ার পর ভেনিজুয়েলা সরকার ব্যাপক বহিষ্কার শুরু করেছে।

 


আরো সংবাদ