২১ মে ২০১৯

ফায়ার সেফটি-সিকিউরিটি এক্সপো

-

আগামী বৃহস্পতিবার থেকে রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে শুরু হবে ইন্টারন্যাশনাল ফায়ার সেফটি অ্যান্ড সিকিউরিটি এক্সপো-২০১৯। এবার ষষ্ঠবারের মতো তিন দিনব্যাপী এ মেলা চলবে। মেলা উপলক্ষে গত রোববার জাতীয় প্রেস ক্লাবে ইলেকট্রনিকস সেফটি অ্যান্ড সিকিউরিটি অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (ইসাব)-এর সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করে। বক্তারা জানান, এবারের মেলায় যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, জার্মানি, ইতালি, তাইওয়ান, তুরস্ক, চীন, ভারতসহ ২৬ দেশের ফায়ার সেফটি অ্যান্ড সিকিউরিটির খ্যাতনামা ব্র্যান্ড প্রতিষ্ঠানের পণ্য প্রদর্শিত হবে। মেলায় স্টল থাকবে ৭০টি। মেলার উদ্বোধন করবেন গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম। মেলায় কো-পার্টনার থাকছে ফায়ার সার্ভিস অ্যান্ড সিভিল ডিফেন্স, অ্যাসোসিয়েট পার্টনার থাকছে বিটিএমএ ও সাপোর্ট পার্টনার থাকবে র্যাব ফোর্সেস। মেলা সবার জন্য উন্মুক্ত। মেলায় চারটি বিশেষ সেমিনার হবে।
সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন ফায়ার সার্ভিস অ্যান্ড সিভিল ডিফেন্সের মহাপরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল আলী আহমেদ খান, ইসাবের সভাপতি মোতাহার হোসেন খান।
অগ্নি নিরাপত্তা ও সিকিউরিটি ব্যবস্থা নিশ্চিত করতে সরকারের পাশাপাশি বেসরকারি খাতের উদ্যোক্তারাও এগিয়ে এসেছেন বলে জানান, মোতাহার হোসেন খান। আর এ খাতের ব্যবসায়ীদের ঐক্যবদ্ধ সংগঠন হচ্ছে ইসাব। ইসাবের পক্ষ থেকে আমরা ষষ্ঠবারের মতো তিন দিনব্যাপী এ মেলার আয়োজন করেছি। যা আগামী ১৪-১৬ ফেব্রুয়ারি হবে। তিনি বলেন, ক্রেতাদের চাপে রফতানিমুখী শিল্পকারখানার বেশির ভাগে অগ্নিনিরাপত্তা ব্যবস্থা নিশ্চিত করা হয়েছে। তবে ব্যক্তিমালিকানাধীন অনেক ভবন, প্রতিষ্ঠান এখনো এ থেকে পিছিয়ে আছে। ১০ বছরের পরিসংখ্যান থেকে জানা যায়, কেবল রাজধানীতে উচ্চ ভবনের হার বেড়েছে ৫১৪ শতাংশ। তবে এসব ভবনে কতটুকু অগ্নিনিরাপত্তা নিশ্চিত করা গেছে, তা প্রশ্নসাপেক্ষ।
এ সময় তিনি বিদ্যমানসহ সব উচ্চ ভবনে অগ্নিনিরাপত্তা ছাড়পত্র নিশ্চিত করতে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে কার্যকর ভূমিকা রাখার আহ্বান জানান। সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, গত পাঁচ বছরে দেশে অগ্নিকাণ্ডে প্রায় ২৫ হাজার কোটি টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। শুধু ২০১৮ সালেই দেশে ছোট-বড় মিলিয়ে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে ১৯ হাজার ৬৪২টি। এতে প্রাণহানি হয়েছে ১৩০ জনের, আহত হয়েছেন ৬৬৪ জন। ইন্টারন্যাশনাল ফায়ার সেফটি অ্যান্ড সিকিউরিটি এক্সপ্রো সম্পর্র্কে আরো বিস্তারিত জানতে পারবেন যঃঃঢ়://রভংংব.পড়স ওয়েবসাইটে।


আরো সংবাদ

agario agario - agario