১৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

ঘুরে দাঁড়াচ্ছে লিবিয়া

ঘুরে দাঁড়াচ্ছে লিবিয়া - সংগৃহীত

যুদ্ধ বিধ্বস্ত লিবিয়ার দেরনা অঞ্চল আইএসের দখল থেকে পুনরুদ্ধারের দাবি করেছে দেশটির সরকারি বাহিনী।

দেশটির জাতীয় নিরাপত্তা সেনা কমান্ডার খলিফা হাফতার বলেন, বৃহস্পতিবার লিবীয় সেনারা সন্ত্রাসীদের অবস্থান লক্ষ্য করে দফায় বিমান হামলা চালায়। হামলার এক পর্যায়ে এলাকা ছেড়ে যেতে বাধ্য হয় তারা।

এলাকাটি সন্ত্রাসীদের সর্বশেষ ঘাটি ছিল বলে জানানো হয়। ২০১১ সাল দেশটির সাবেক প্রধানমন্ত্রী মুয়াম্মার গাদ্দাফির পতনের পর থেকে দেরনা সন্ত্রাসীদের দখলে ছিল।

লিবিয়া সীমান্তে প্রাচীর নির্মাণ করবে তিউনিসিয়া

সন্ত্রাসী হুমকি ঠেকাতে লিবিয়ার সাথে সীমান্তে একটি প্রাচীর নির্মাণের পরিকল্পনা ঘোষণা করেছে তিউনিসিয়া। উপকূল থেকে ভূখণ্ডের ভেতরের দিকে ১৬০ কিলোমিটার জুড়ে তৈরি করা হবে এ প্রাচীর। এ বছর শেষ নাগাদ এর কাজ শেষ হবে বলে রাষ্ট্রীয় টিভিতে জানিয়েছেন তিউনিসিয়ার প্রধানমন্ত্রী হাবিব এসিদ।

সম্প্রতি তিউনিসিয়ার সুস শহরে পর্যটন অবকাশ কেন্দ্রের সৈকতে হামলা চালিয়ে ৩৮ জনকে হত্যাকারী সেই বন্দুকধারী লিবিয়া থেকে জঙ্গি হামলার প্রশিণ নিয়েছিল বলে ধারণা করা হয়। গত মাসে এ হামলার পর তিউনিসিয়া জরুরি অবস্থা জারি করে।

তিউনিসিয়ার সেনাবাহিনী প্রাচীরটি তৈরি করবে বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। প্রাচীরটির কয়েকটি জায়গায় থাকবে নজরদারি কেন্দ্র। সুস শহরে হামলার ঘটনাকে কেন্দ্র করে কর্তৃপ এরই মধ্যে নিরাপত্তা জোরদার করেছে।

হোটেল ও সৈকতে মোতায়েন করা হয়েছে নিরাপত্তা বাহিনীর এক হাজার ৪০০-এর বেশি সশস্ত্র কর্মকর্তা। গত সপ্তাহে প্রধানমন্ত্রী এসিদ বিবিসিকে বলেছেন, সুস শহরে হামলাকারী সাইফুদ্দিন রেজগুই খুব সম্ভবত আনসার আল-শারিয়া গ্রুপের সাথে লিবিয়ায় প্রশিণ নিয়েছিলেন।


আরো সংবাদ




Hacklink

ofis taşıma