২৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

শিমুলিয়া-কাঠালবাড়ি নৌরুটে লঞ্চ-স্পিডবোট চলাচল বন্ধ

পদ্মা উত্তাল থাকায় লঞ্চ ও ফেরি চলাচলে বিঘ্ন ঘটছে। - ছবি: নয়া দিগন্ত

ঝড়ো বাতাসে উত্তাল হয়ে উঠেছে পদ্মা নদী। দূর্ঘটনা এড়াতে শুক্রবার বেলা পৌনে ১১টা থেকে কাঁঠালবাড়ী-শিমুলিয়া নৌরুটে লঞ্চ ও স্পিডবোট চলাচল বন্ধ করে দেয় কর্তৃপক্ষ। লঞ্চ ও স্পীডবোট বন্ধ থাকায় ফেরিতে ছিল প্রচন্ড যাত্রী চাপ। তবে উত্তাল পদ্মায় ফেরি চলাচলও ব্যাহত হয়। এতে উভয় পাড়ে যাত্রী দূর্ভোগ চরম আকার ধারণ করেছে।

বিআইডব্লিটিএ ও বিআইডব্লিউটিসি কাঁঠালবাড়ী ঘাট সূত্র জানায়, আজ শুক্রবার বেলা পৌনে ১১টা থেকেই ঝড়ো বাতাস বইতে থাকে। ধীরে ধীরে বাতাসের গতিবেগ বৃদ্ধি পেয়ে মাঝ পদ্মা উত্তাল হয়ে উঠলে দুর্ঘটনা এড়াতে পৌনে ১১টার দিক শিমুলিয়া-কাঁঠালবাড়ি নৌরুটে লঞ্চ ও স্পীডবোট চলাচল বন্ধ করে দেয় বিআইডব্লিউটিএ।

পদ্মা উত্তাল থাকায় ফেরিগুলো ধীরে ধীরে সতর্কতার সাথে চলাচল করে। কাঁঠালবাড়ি ঘাট থেকে ছেড়ে যাওয়া প্রতিটি ফেরি ছিল যাত্রীতে কানায় কানায় পূর্ণ। লঞ্চ ও স্পীডবোট চলাচল বন্ধ থাকায় দক্ষিণাঞ্চল থেকে আসা ঢাকাগামী শতশত যাত্রী কাঁঠালবাড়ি ঘাটে আটকে পড়ে। ঘন্টার পর ঘন্টা ঘাটে আটকে থেকে যাত্রীরা চরম ভোগান্তির শিকার হন। নারী ও শিশু যাত্রীরা পড়েন চরম বিপাকে।

মাদারীপুর থেকে আসা যাত্রী মো: মৃদুল হাসান সরদার বলেন, দুপুর সোয়া ১টার সময় ঘাটে এসে দেখি লঞ্চ ও স্পীডবোট বন্ধ। আর ফেরিতে যাত্রীদের এত চাপ যে ছোট ছেলে মেয়ে নিয়ে উঠতে পারিনি। তাই এখনো ঘাটে বসে আছি।

বিআইডব্লিউটিএ কাঁঠালবাড়ী ঘাট ট্রাফিক ইন্সপেক্টর আক্তার হোসেন বলেন, বৈরি আবহাওয়ায় পদ্মা উত্তাল থাকায় সকাল থেকে লঞ্চ ও স্পিডবোট চলাচল বন্ধ রাখা হয়েছে। আবহাওয়া স্বাভাবিক না হওয়া পর্যন্ত লঞ্চ ও স্পীডবোট বন্ধ থাকবে। যাত্রীদের ফেরিতে পারপার হওয়ার জন্য পরামর্শ দিচ্ছি।

এর আগে গত বৃহস্পতিবার সকাল থেকে বৈরি আবহাওয়ার কারণে শিমুলিয়া-কাঁঠালবাড়ি নৌরুটে লঞ্চ ও স্পীডবোট চলাচল বন্ধ করে দেয় বিআইডব্লিউটিএ।

বিআইডব্লিটিসির কাঁঠালবাড়ি ঘাটের মহাব্যবস্থাপক আব্দুস সালাম মিয়া জানান বলেন, বৈরী আবহাওয়া ও তীব্র স্রোতের কারণে শিমুলিয়া-কাঁঠালবাড়ি নৌরুটে লঞ্চ ও সিবোট চলাচল সকাল সাড়ে ১০টা থেকে বন্ধ রাখা হয়েছে। আবহাওয়া অনুকূলে আসলে আবার চালু করা হবে। ৮৭টি লঞ্চ ও তিন শতাধিক স্পিডবোট দিয়ে যাত্রী চলাচল করে। বৈরি আবহাওয়ার কারেণ ফেরি চলাচল বিঘ্নিত হচ্ছে। রো-রো ফেরি বন্ধ রয়েছে। তবে ১৩টি মধ্যম সারির ফেরি চলছে ধীরগতিতে।

 


আরো সংবাদ

Hacklink

ofis taşıma Instagram Web Viewer

canli radyo dinle

Yabanci Dil Seslendirme