১৭ নভেম্বর ২০১৮

জুলাই থেকে ই-পাসপোর্ট

জুলাই থেকে ই-পাসপোর্ট - ছবি : সংগৃহীত

জুলাই থেকে ই-পাসপোর্ট প্রবর্তন কার্যক্রম শুরু হচ্ছে। পর্যায়ক্রমে তিন কোটি ই-পাসপোর্ট দেয়া হবে। একাধিক পাসপোর্ট নেয়ার প্রবণতা বন্ধ, বিভিন্ন দেশে এমআরপি গ্রহণ না করার কারণেই ই-পাসপোর্ট করা হচ্ছে। অন্যদিকে নতুন করে বাড়তি ভুমি অধিগ্রহণের কারণে পদ্মা সেতুর নির্মাণ ব্যয় ১ হাজার ৪ শ' কোটি টাকা ব্যয় বৃদ্ধি পাচ্ছে বলে জানান পরিকল্পনামন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল।

প্রধানমন্ত্রী ও একনেক চেয়ারপার্সন শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে আজ বৃহস্পতিবার শেরেবাংলা নগরস্থ এনইসি সম্মেলনকক্ষে অনুষ্ঠিত একনেক সভায় ই-পাসপোর্ট প্রকল্পটিসহ মোট ১৫টি প্রকল্প অনুমোদন দেয়া হয়। সভা শেষে ব্রিফিংয়ে পরিকল্পনামন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল প্রকল্পগুলোর ব্যাপারে সাংবাদিকদের জানান। মন্ত্রী জানান, ১৪ প্রকল্পে ব্যয় হবে ১৮ হাজার ৩৭২ কোটি ২৪ লাখ টাকা। এর মধ্যে ১১ হাজার ২২৮ কোটি ৮২ লাখ টাকা দেয়া হবে জিওবি খাত থেকে। আর প্রকল্প সাহায্য ৬ হাজার ৫৫৪কোটি ৯৬ লাখ টাকা।

মন্ত্রী জানান, জার্মানিসহ বেশ কয়েকটি দেশে এমআরপির অনুমোদন নেই। তারা ই-পাসপোর্টের জন্য একটা সময় বেঁধে দিয়েছে। তাই এই পদক্ষেপ। তবে দেশের মধ্যে কেউ কেউ আবার ম্যানুয়ালে ফিরে যাওয়া। সেটা হবে না। দেশের বাইরে থেকে ২০ লাখ ই-পাসপোর্ট বই কিনে আনা হবে। দেশে তৈরি হবে ২ কোটি ৮০ লাখ। ১০ বছরের জন্য এই প্রকল্প।

 


আরো সংবাদ