২০ জুন ২০১৮

৩৮ ও ৩৯তম বিসিএস পরীক্ষার তারিখ নির্ধারণ

চাকরি
৩৮ ও ৩৯তম বিসিএস পরীক্ষার তারিখ নির্ধারণ - নয়া দিগন্ত

৩৮তম ও ৩৯তম বিসিএসের পরীক্ষার তারিখ নির্ধারণ করেছে বাংলাদেশ সরকারি কর্মকমিশন (পিএসসি)। আজ মঙ্গলবার সকালে পিএসসির বিশেষ বৈঠকে এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত হয়।

সিদ্ধান্ত অনুযায়ী চিকিৎসক পরীক্ষার্থীদের সরকারি কর্ম কমিশনের জারিকৃত ৩৯তম বিসিএসের প্রিলিমিনারি পরীক্ষা ৩ আগস্ট ও ৩৮তম বিসিএসের লিখিত পরীক্ষা ৮ আগস্ট শুরু হবে।

গত বছরের ২৯ ডিসেম্বর ৩৮তম বিসিএসের প্রিলিমিনারী পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। গত ২৮ ফ্রেব্রুয়ারি প্রকাশিত ফলাফলে ১৬ হাজার ২৮৬ জন লিখিত পরীক্ষার জন্য উত্তীর্ণ হন।

এই বিসিএসে রেকর্ড সংখ্যক ৩ লাখ ৪৬ হাজার ৫৩২ জন প্রার্থী আবেদন করেন। এই বিসিএসে ২ হাজার ২৪ জন ক্যাডার কর্মকর্তা নিয়োগ করা হবে বলে বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে পিএসসি। এর মধ্যে প্রশাসন ক্যাডারের ৩০০, পুলিশ ক্যাডারের ১০০টি পদসহ ৩৮তম বিসিএসে সাধারণ ক্যাডারে মোট ৫২০টি, কারিগরি ও পেশাগত ক্যাডারে ৫৪৯টি এবং শিক্ষা ক্যাডারে ৯৫৫টি পদ রয়েছে।

পিএসসির চেয়ার ড. মোহাম্মদ সাদিক জানিয়েছেন, কমিশন সভায় দু’টি বিসিএসের বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। ৩৭ তম বিসিএসের চূড়ান্ত ফল প্রকাশের বিষয়েও দ্রুত সিদ্ধান্ত নেয়া হবে বলে জানিয়েছেন তিনি।

৩৯তম বিসিএস থেকে নেয়া হবে স্বাস্থ্য ক্যাডারে ৪৫৪২ জন সহকারী সার্জন এবং ২৫০ জন সহকারি ডেন্টাল সার্জন।

গত বছরের ১৮ সেপ্টেম্বর পিএসসির সচিবকে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের স্বাস্থ্য সেবা বিভাগের উপ-সচিব মো: মফিদুর রহমান স্বাক্ষরিত একপত্রে জানান হয়, ‘স্বাস্থ্য বিভাগে বিদ্যমান চিকিৎসক স্বল্পতার কারণে বিসিএস (স্বাস্থ্য) ক্যাডারে সহকারি সার্জনের ৪৫৪২টি এবং সহকারী ডেন্টাল সার্জনের ২৫০টি পদ পূরণের নিমিত্ত একটি বিশেষ বিসিএস পরীক্ষা আয়োজনের প্রয়োজনীয় কার্যক্রম গ্রহণের জন্য নির্দেশক্রমে অনুরোধ করা হলো’।

মন্ত্রণালয়ের চিঠির পরিপ্রেক্ষিতে পিএসসি ৩৯তম বিশেষ বিসিএস বিজ্ঞপ্তি জারির সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এরই পরিপ্রেক্ষিতে গত ৮ এপ্রিল ৩৯তম বিশেষ বিসিএসের বিজ্ঞপ্তি জারি করা হয়। ৩৯তম বিশেষ বিসিএসে এমসিকিউ পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। এতে ২০০ নম্বরের প্রশ্নের উত্তর দিতে হবে দুই ঘণ্টায়। এ ছাড়া ১০০ নম্বরের মৌখিক পরীক্ষা হবে।

সংশোধিত বিধিমালা অনুযায়ী, মেডিকেল সায়েন্স বা ডেন্টাল সায়েন্স বিষয়ে ১০০ নম্বর; বাংলা, ইংরেজি, বাংলাদেশ বিষয়াবলী ও আন্তর্জাতিক বিষয়াবলীতে ২০ নম্বর করে এবং মানসিক দক্ষতা ও গাণিতিক যুক্তিতে ১০ নম্বর করে মোট ২০০ নম্বরের দুই ঘণ্টার এমসিকিউ ধরনের লিখিত পরীক্ষা হবে। ২০০টি প্রতি এমসিকিউ প্রশ্নের সঠিক উত্তরের জন্য এক নম্বর দেয়া হবে। তবে প্রতিটি ভুল উত্তরের জন্য শূন্য দশমিক ৫০ নম্বর কাটা যাবে। মৌখিক পরীক্ষার পাস নম্বর ৫০।


আরো সংবাদ