১৮ অক্টোবর ২০১৯

বাদল দিনের কদমফুল

-


জ্যৈষ্ঠ শেষে এক পশলা বৃষ্টি। সেই বৃষ্টিতে গ্রীষ্মের রুক্ষতা কাটিয়ে সতেজ হয় প্রকৃতি। ফিরে আসে প্রকৃতির আপন প্রাণ। নতুন বারিধারার স্নিগ্ধ পরশে গাছে ফোটে কদম ফুল। এই কদম ফুল আর বৃষ্টি জানান দেয় বর্ষার আগমন। টিনের চালে বৃষ্টির ঝিরিঝিরি শব্দ যেন বর্ষার আগমনী গান। তাইতো বর্ষাকে কেউ কেউ বলেন ঋতুরাণী।
প্রকৃতিতে এখন হিজল বনে ঝরা হিজল ফুল, বকুল ফুলের ম ম গন্ধ। সেই সাথে বর্ষার কদম কেয়াতো আছেই। প্রেমিকার মন পেতে কদম ফুলের জুড়ি নেই। বর্ষাতে প্রেয়সীর খোঁপায় থাকুক কদম ফুল। সে বসে থাকুক অপেক্ষার স্টেশনে। যেখানে শুধু টুপটুপ বৃষ্টির শব্দ। অবশেষে ঝিরিঝিরি বৃষ্টির মধ্যে তার সামনে হাজির হই বর্ষার প্রথম কদম নিয়ে। এমন কতশত রোমাঞ্চকর ভাবনাইতো বর্ষা নিয়ে আসে।
এই বর্ষা আমাদের সাহিত্যে যোগ করেছে কতশত রসদ। তার স্নিগ্ধতায় ব্যাকুল হয়েছিলেন রবীন্দ্র-নজরুল, জসীম উদদীন,আল মাহমুদ। বর্ষার উপহার সোনা রঙের কদম ফুল নিয়ে রচিত হয়েছে নানা গল্প, উপন্যাস, কবিতা ও গান। রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর তার শিহরন জাগানিয়া বর্ষার গানে লিখেছেন,
‘বাদল দিনের প্রথম কদম ফুল’।
জনপ্রিয় কথাসাহিত্যিক হুমায়ূন আহমেদ কদম-প্রেমে মজে রচনা করেছেন পাঠকনন্দিত উপন্যাস ‘বাদল দিনের দ্বিতীয় কদম ফুল’।
আমাদের জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামের মনেও কোমলতা এনেছে স্বর্ণরঙিন কদম ফুল। তিনি লিখেছেনÑ
‘দোলে শিহরে কদম,
বিদরে কেয়া/নামিল দেয়া।
পল্লীকবি জসীম উদদীন তার ‘পল্লীবর্ষা’ কবিতায় উল্লেখ করেছেন-
কাহার ঝিয়ারী কদম্ব-শাখে নিঝুম নিরালায়,
ছোট ছোট রেণু খুলিয়া দেখিয়ে অস্ফুট কলিকায়!
পল্লীকবি হিজলের সাথে বর্ষার সম্পর্ক দেখিয়েছেন এভাবে,
হিজলের বন ফুলের আখরে লিখিয়া রঙিন চিঠি
নিরালা বাদলে ভাসায়ে দিয়াছে না জানি সেই কোন দিঠি!
বর্ষার বিশেষ অনুষঙ্গ কদম একটি নিবিড় পত্রবিন্যাসের ছায়াঘন বৃক্ষ। শীতে কদমের পাতা ঝরে যায় এবং বসন্তে কচি পাতা গজায়। কদমের পূর্ণ মঞ্জরিকে সাধারণত একটি ফুল বলে মনে হলেও তা মূলত বর্তুলাকার মাংসল পুষ্পাধারে অজস্র সরু সরু ফুলের বিকীর্ণ বিন্যাস। কদম কাঠ জ্বালানি হিসেবে ব্যবহৃত হয়। এর মাংসল ও টক ফল বাদুড় ও কাঠবিড়ালির প্রিয় খাদ্য। ওরাই বীজ ছড়ানোর বাহক।
কদম মূলত বর্ষার ফুল হলেও জলবায়ুর পরিবর্তনে আগাম বৃষ্টির কারণে জ্যৈষ্ঠ মাসে এবং ভাদ্র আশ্বিনেও চোখে পড়ে। বৃষ্টি হলেই কদম ফুল ফোটে। এর বজ্রগর্ভে বৃষ্টির পানি পৌঁছলেই ফুল ফুটতে শুরু করে।
সরকারি রাজেন্দ্র কলেজ, ফরিদপুর।

 


আরো সংবাদ

খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে জাতীয় পতাকা অবমাননা মামলার শুনানি ৪ নভেম্বর ডিএনসিসির জরিপ কর্মকর্তা পরিচয়ে প্রতারণার দায়ে আটক ১ শিবচরে গণ-উন্নয়ন সমিতির কোটি কোটি টাকা আত্মসাতের অভিযোগ জবি ছাত্র ইউনিয়নের নেতৃত্বে মুত্তাকী-জাহিন তোলারাম কলেজে কোথায় টর্চার সেল? ‘দ্বীনকে বিজয়ী করতে সর্বক্ষেত্রে যোগ্যতার স্বাক্ষর রাখতে হবে’ বেসিক ব্যাংকের ঋণ কেলেঙ্কারি মোজাফফরের জামিন বাতিল জয়নুল আবেদীন, মাহবুব উদ্দিন খোকনসহ তিনজনের জামিন শেখ রাসেলের জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে ইউল্যাব স্কুলে আলোচনা জহুর-তনয় আশফাকের স্মরণসভাসিএনসির বিচারককে প্রত্যাহার দাবি আইনজীবী ফোরাম ও বার সম্পাদকের

সকল

ট্রাম্পের 'অতুলনীয় জ্ঞানের' সিদ্ধান্তে বদলে গেল সিরিয়া যুদ্ধের চিত্র (৩২১৯০)ভারতের সাথে তোষামোদির সম্পর্ক চাচ্ছে না বিএনপি (১৮৪৫৫)মেডিকেলে চান্স পেলো রাজমিস্ত্রির মেয়ে জাকিয়া সুলতানা (১৪৯৪৬)তুরস্ককে নিজ ভূখণ্ডের জন্য লড়াই করতে দিন : ট্রাম্প (১৪৭০৩)আবরারকে টর্চার সেলে ডেকে নিয়েছিল নাজমুস সাদাত : নির্যাতনের ভয়ঙ্কর বর্ণনা (১৩৮১৫)পাকিস্তানকে পানি দেব না : মোদি (১১২৭৪)১১৭ দেশের মধ্যে ১০২ : ক্ষুধা সূচকে বাংলাদেশ-পাকিস্তানের চেয়ে পিছিয়ে ভারত (৮৯৭০)তুহিনকে বাবার কোলে পরিবারের সদস্যরা হত্যা করেছে : পুলিশ (৮৮৮৫)বাঁচার লড়াই করছে ভারতে জীবন্ত কবর দেয়া মেয়ে শিশুটি (৮৬৯৫)এক ভাই মেডিকেলে আরেক ভাই ঢাবিতে (৮৫২৩)



astropay bozdurmak istiyorum
portugal golden visa