১৮ অক্টোবর ২০১৯

রাজধানীতে চলছে জাতীয় ফল প্রদর্শনী

-

রাজধানীর ফার্মগেটে গত রোববার থেকে শুরু হয়েছে জাতীয় ফল প্রদর্শনী। ফলদ বৃক্ষরোপণ পক্ষ ২০১৯ ও জাতীয় ফল প্রদর্শনীর এবারের মূল প্রতিপাদ্য বিষয় পরিকল্পিত ফল চাষ জোগাবে পুষ্টিসম্মত খাবার। বৃক্ষরোপণ পক্ষ ও জাতীয় ফল প্রদর্শনীর উদ্বোধন করেছেন কৃষিমন্ত্রী ড. আবদুর রাজ্জাক। তিনি বলেন, ফল উৎপাদনে আমরা অনেক এগিয়ে গেছি। অনেক ফল আছে, যেগুলো সারা বছর ধরে চাষ করা হচ্ছে। পাশাপাশি বিভিন্ন ধরনের বিদেশী ফলও চাষ হচ্ছে। দেশী ফলের পুষ্টিমান যেমন রয়েছে, তেমনি সবার কাছে সমাদৃত। এ ফলমেলা সবার সচেতনতা বৃদ্ধিতে সহায়ক হবে।
বাংলাদেশের প্রায় সব ফলই স্থান পেয়েছে এই মেলায়।
নতুন জাতের আম কাটি মন, বারি আম-১১ ও ব্রুনাই কিং। বারো মাসেই ফল দেয় এই তিন জাতের আম। আর ব্রুনাই কিং জাতের একটি আমের ওজন হয় তিন থেকে পাঁচ কেজি। বাণিজ্যিকভাবে এ আম চাষে সফল চাষিরা। ফলমেলায় গিয়ে দেখা যায়, বৃন্দাবনী, সুবর্ণরেখা, গৌরমতী, সূর্যপুরী, বালিশ আমসহ ৭৫ জাতের আমের পসরা সাজানো হয়েছে। ফলের ধরন আর গুণে মুগ্ধ হয়ে আম চাষে আগ্রহী হয়ে উঠেছেন চাষিরাও। নাটোর থেকে আসা এমনই এক আমচাষি শওকত হোসেন। তিনি বলেন, আগামীতে কাটি মন ও বারি আম-১১ চাষ করব। কারণ, কাটি মন ও বারি আম-১১ বারো মাস ফল দেয়। ফলে বাণিজ্যিকভাবে সফল হওয়া যাবে।
জাতীয় ফলমেলায় সাতটি সরকারি ও ৫৭টি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের মোট ৮৪টি স্টল রয়েছে। নতুন প্রজাতির ফলের পাশাপাশি মেলায় সাজানো হয়েছে বিলুপ্ত অনেক ফলের পসরা। বাংলাদেশের কৃষি গবেষণা প্রতিষ্ঠানের উদ্যোগে ‘ময়না’ নামে একটি ফল দৃষ্টি আকর্ষণ করেছে দর্শনার্থীদের। এ ছাড়া বিলুপ্তপ্রায় বাউফল, খুদে জাম, টিপাফল, সফেদা, ডেউয়া, দেশী গাব, বন কাঁঠালসহ নানা ধরনের দেশী ফলের দেখা মিলেছে এ প্রদর্শনীতে। পরিকল্পিত চাষাবাদে এসব ফল আবার পাওয়া যাচ্ছে দেশের গ্রামগঞ্জ ও শহরের বাজারে। প্রদর্শনীতে দেশী ফলের বাইরে বিদেশী ফল ড্রাগন, রাম্বুটান, স্ট্রবেরি, মাল্টা, লঙ্গন, অ্যাভোকাডো, মিষ্টি তেঁতুলও দেখা গেছে।
জাতীয় ফল প্রদর্শনী আজ শেষ হবে এবং ফলদ বৃক্ষরোপণ পক্ষ চলবে ৩০ জুন পর্যন্ত।

 


আরো সংবাদ

খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে জাতীয় পতাকা অবমাননা মামলার শুনানি ৪ নভেম্বর ডিএনসিসির জরিপ কর্মকর্তা পরিচয়ে প্রতারণার দায়ে আটক ১ শিবচরে গণ-উন্নয়ন সমিতির কোটি কোটি টাকা আত্মসাতের অভিযোগ জবি ছাত্র ইউনিয়নের নেতৃত্বে মুত্তাকী-জাহিন তোলারাম কলেজে কোথায় টর্চার সেল? ‘দ্বীনকে বিজয়ী করতে সর্বক্ষেত্রে যোগ্যতার স্বাক্ষর রাখতে হবে’ বেসিক ব্যাংকের ঋণ কেলেঙ্কারি মোজাফফরের জামিন বাতিল জয়নুল আবেদীন, মাহবুব উদ্দিন খোকনসহ তিনজনের জামিন শেখ রাসেলের জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে ইউল্যাব স্কুলে আলোচনা জহুর-তনয় আশফাকের স্মরণসভাসিএনসির বিচারককে প্রত্যাহার দাবি আইনজীবী ফোরাম ও বার সম্পাদকের

সকল

ট্রাম্পের 'অতুলনীয় জ্ঞানের' সিদ্ধান্তে বদলে গেল সিরিয়া যুদ্ধের চিত্র (৩২১৯০)ভারতের সাথে তোষামোদির সম্পর্ক চাচ্ছে না বিএনপি (১৮৪৫৫)মেডিকেলে চান্স পেলো রাজমিস্ত্রির মেয়ে জাকিয়া সুলতানা (১৪৯৪৬)তুরস্ককে নিজ ভূখণ্ডের জন্য লড়াই করতে দিন : ট্রাম্প (১৪৭০৩)আবরারকে টর্চার সেলে ডেকে নিয়েছিল নাজমুস সাদাত : নির্যাতনের ভয়ঙ্কর বর্ণনা (১৩৮১৫)পাকিস্তানকে পানি দেব না : মোদি (১১২৭৪)১১৭ দেশের মধ্যে ১০২ : ক্ষুধা সূচকে বাংলাদেশ-পাকিস্তানের চেয়ে পিছিয়ে ভারত (৮৯৭০)তুহিনকে বাবার কোলে পরিবারের সদস্যরা হত্যা করেছে : পুলিশ (৮৮৮৫)বাঁচার লড়াই করছে ভারতে জীবন্ত কবর দেয়া মেয়ে শিশুটি (৮৬৯৫)এক ভাই মেডিকেলে আরেক ভাই ঢাবিতে (৮৫২৩)



astropay bozdurmak istiyorum
portugal golden visa