১৪ ডিসেম্বর ২০১৯

জীবন পাতার অনেক খবর

চারাগল্প
-

শাজাহান সাহেবের আলিশান বাড়ির অভিজাত সোফায় বসে আছেন কাশেম। আজ তেরো বছর পর এই বাড়িতে এসেছেন তিনি। সেই যে তেরো বছর আগে এক চৈত্রের সন্ধ্যাবেলায় মেয়ে নাভানাকে এই বাড়িতে এনে শাজাহান সাহেবের কাছে দশ হাজার টাকার বিনিময়ে বিক্রি করে দিয়েছেন, এত বছর পর আজ আবার এসেছেন। না জানি মেয়েটা এতদিনে কত বড় হয়েছে! মেয়ের কথা ভাবতেই চোখে পানি চলে এলো কাশেমের। টাকার লোভে একদিন তিনি পিতৃত্বকে পরোয়া না করে নিজের শিশু বয়সের মেয়েকে শাজাহান সাহেবের কাছে বিক্রি করে দিয়েছেন বলে আজো নিজেকে ক্ষমা করতে পারছেন না। একদিন তিনি কতই না অমানুষ ছিলেন। সেসব ভাবতে গেলে আজো নিজেকে ধিক্কার দেন। স্ত্রী নূর নাহারের কোল থেকে তিনি শিশু মেয়ে নাভানাকে কেড়ে এনে নিঃসন্তান শাজাহান সাহেবের কাছে বিক্রি করে নগদ দশ হাজার টাকা নিয়ে অভাবের সংসারের হাল ধরেছেন। অভাবে পড়লে মানুষকে কখনো কখনো অমানুষও হতে হয়।
চার মাস আগে নূর নাহার মারা গেছে। স্ত্রীর মৃত্যু বড় একা করে দিয়েছে কাশেমকে। অভাবে না হয় টাকার জন্য মেয়েকে বিক্রি করেছেন, কিন্তু মেয়ের জন্য যে মনটা সব সময় জ্বলতো। দিন দিন সংসার থেকে অভাব দূর হতে থাকে। ভালো কোম্পানিতে চাকরি পান কাশেম