১৯ অক্টোবর ২০১৯

সৌদিতে নারীকর্মীরা নির্যাতনের শিকার হন, মন্ত্রণালয়ের স্বীকারোক্তি

সৌদিতে নারীকর্মীরা নির্যাতনের শিকার হন, মন্ত্রণালয়ের স্বীকারোক্তি - ছবি : সংগৃহীত

সৌদি আরব থেকে ফিরে আসা বাংলাদেশি নারীকর্মীরা সেখানে যৌন নির্যাতনের অভিযোগ করলেও তা নিয়ে নিরব ছিল প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়। তবে সংসদীয় কমিটিতে পাঠানো এক প্রতিবেদনে মন্ত্রণালয় স্বীকার করেছে যে মধ্যপ্রাচ্যের দেশটিতে কাজ নিয়ে যাওয়া নারীরা নানা নির্যাতনের পাশাপাশি যৌন নিপীড়নেরও শিকার হয়েছেন।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, গত ২৬ অগাস্ট সৌদি আরব থেকে ফিরে আসা নারী গৃহশ্রমিকদের ৩৮ জন শারীরিক ও যৌন নির্যাতনের শিকার হয়েছিলেন। ৪৮ জন নারীকে নিয়মিত বেতন-ভাতা দেয়া হত না। বৃহস্পতিবার প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির বৈঠকে মন্ত্রণালয়ের উপস্থাপন করা এক প্রতিবেদনে এই তথ্য পাওয়া গেছে।

নারী শ্রমিকদের সঙ্গে কথা বলে মন্ত্রণালয় তাদের ফিরে আসার ১১টি কারণ চিহ্নিত করেছে। কোনো কোনো নারী শ্রমিক একইসঙ্গে একাধিক কারণ উল্লেখ করেছেন। যেমন- একই নারী যৌন নির্যাতনের শিকার হয়েছেন, আবার বেতন-ভাতাও পাননি।

প্রতিবেদন অনুযায়ী যেসব নারীকর্মীরা ফেরত এসেছিলেন তা হল- নিয়মিত বেতন না দেওয়ায় ৪৮ জন, পর্যাপ্ত খাবার না দেওয়ায় ২৩ জন, শারিরীক ও যৌন নির্যাতন ৩৮ জন, ছুটি না দেওয়ায় ৪ জন, একাধিক বাড়িতে কাজ করানোয় ৭ জন, অন্য কফিলের কাছে বিক্রি করে দেওয়ায় ১ জন, শারীরিক অসুস্থতার কারণে ১০ জন, পারিবারিক কারণে ১ জন, ভিসার মেয়াদ না থাকায় ৮ জন, চুক্তি (দুই বছর) শেষ হওয়ায় ১৬ জন এবং অন্যান্য কারণে ২ জন।

২০১৫ সালে এক চুক্তির পর বাংলাদেশ থেকে নারী গৃহকর্মী পাঠানো শুরু হয় সৌদি আরবে। কিন্তু কিছু দিন যেতে যেতেই নারীদের ফেরত আসা শুরু হয়।

ফিরে আসার পর ওই নারী যৌন নির্যাতনের অভিযোগ জানালেও মন্ত্রণালয় এবিষয়ে ছিল নিশ্চুপ। সৌদি আরব সফর করে এসে সংসদীয় একটি দলও দাবি করছিল, নারী গৃহকর্মীদের ফেরার কারণ নির্যাতন নয়।

ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির তৎকালীন সভাপতি বজলুল হক হারুন বলেছিলেন, “সৌদি আরবে অবস্থানরত শ্রমিকরা এবং গৃহকর্মীরা বেশ ভাল আছেন। সেখানে নিয়োজিত গৃহকর্মীদের ভাষা সম্পর্কে অজ্ঞতা, সৌদি খাবার খাওয়ার প্রতি অনাগ্রহ এবং দেশের থাকার প্রতি অতি আগ্রহকে দেশে ফিরে আসার মূল কারণ হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে।”

তবে তারপরও আসা থামেনি; অভিযোগও ছিল আগের মতোই। গত ২৬ আগস্ট ১১১ জন নারী গৃহকর্মী সৌদি আরব থেকে দেশে ফিরে আসেন।


আরো সংবাদ

চাঁদা ছাড়া ব্যবসা করা যায় না ফার্মগেট-কাওরানবাজারে স্কুল থেকে বেত উঠে গেলেও শিশুরা নির্যাতনের শিকার পরিবারে বিশ্বকাপে প্রমাণ করতে হবে,আমরা অনেক বেশি উপযুক্ত : সাকিব অন্ধত্বকে জয় করে ঢাবিতে চান্স পেয়েছে রাফি  হাইকোর্টের রায়ের আলোকে নীতিমালা চান আইনজীবীরা পরিবারের বোঝা মাথায় নিয়ে চাঁদের কণা নিজেই চলেন হুইল চেয়ারে কর্মসূচি পালনে ‘অনুমতি’ বাধা ডিঙাতে চায় বিএনপি চট্টগ্রামে জহুর হকার্স মার্কেটে আগুন কাশ্মির প্রশ্নে যুদ্ধের ঝুঁকি কতটা নেবে পাকিস্তান? অভিযানের মধ্যেই সিন্ডিকেটের কারসাজি : কমছে না পেঁয়াজের ঝাঁজ ১২ ঘণ্টার শ্বাসরুদ্ধ অভিযান মা-বাবার কোলে অপহৃত শিশু অপূর্ব

সকল

দেশী-বিদেশী পাইলটরা লেজার লাইট আতঙ্কে (৩৯৯৩৬)পাকিস্তান বনাম ভারত যুদ্ধপ্রস্তুতি : কে কতটা এগিয়ে (২৮৪৮৪)ভারতীয় বিমানকে ধাওয়া পাকিস্তানের, আফগানিস্তান গিয়ে রক্ষা (২১৮৯৮)দুই বাঘের ভয়ঙ্কর লড়াই ভাইরাল (ভিডিও) (২০৬১৪)শীর্ষ মাদক সম্রাটের ছেলেকে আটকে রাখতে পারলো না পুলিশ, ব্যাপক দাঙ্গা-হাঙ্গামা (১৪৭১৯)রৌমারী সীমান্তে বিএসএফ’র গুলি ও ককটেল নিক্ষেপ! (১৪৫৭২)বিশাল বিমানবাহী রণতরী নির্মাণ চীনের, উদ্বেগে যুক্তরাষ্ট্রসহ অনেকে (১৪৩৩৮)‘গরু ছেড়ে মহিলাদের দিকে নজর দিন’,: মোদির প্রতি কোহিমা সুন্দরীর পরামর্শে তোলপাড় (১৩৫৮২)বিএসএফ সদস্য নিহত হওয়ার বিষয়ে যা বললো বিজিবি (১১৮৬৩)লেন্দুপ দর্জির উত্থান এবং করুণ পরিণতি (৯৩৩৫)



astropay bozdurmak istiyorum
portugal golden visa