২২ সেপ্টেম্বর ২০১৯

কৃষ্ণা চৌধুরীকে চাপা দেয়া বাসচালক গ্রেফতার

বাসচাপায় বিআইডব্লিউটিসি কর্মকর্তা কৃষ্ণা রায় চৌধুরীর পা হারানোর ঘটনায় প্রধান আসামি বাসচালককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনের (পিবিআই) ঢাকা মেট্রোর উত্তর বিভাগ। গ্রেফতারকৃত বাসচালকের নাম মোরশেদ। রাজধানীর মিরপুর কাজীপাড়া থেকে রোববার দিবাগত রাতে তাকে গ্রেফতার করা হয়। বিষয়টি নিশ্চিত করে পিবিআইয়ের ঢাকা মেট্রোর উত্তর বিভাগের এসপি বশির আহমেদ বলেছেন, গ্রেফতারকৃত বাসচালককে সোমবারই আদালতে সোপর্দ করা হবে।

আহত কৃষ্ণা রায় (৫৫) বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ পরিবহন কর্পোরেশনের (বিআইডব্লিউটিসি) সহকারী ব্যবস্থাপক (অর্থ) পদে কর্মরত। গত ২৭ আগস্ট মঙ্গলবার দুপুরে রাজধানীর বাংলামোটরে ফুটপাতে উঠে গিয়ে ওই নারীর পা পিষে দিয়ে চলে যায় ট্রাস্ট ট্রান্সপোর্ট সার্ভিসের একটি বাস। হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পর চিকিৎসকরা হাঁটুর নিচ থেকে তার পা কেটে ফেলেন।

জানা যায়, অফিস শেষে বাসে উঠতে বাংলামোটরে সড়কের পূর্ব পাশের ফুটপাতে দাঁড়িয়েছিলেন তিনি। ওই সময় শাহবাগমুখী ট্রাস্ট ট্রান্সপোর্ট সার্ভিসের একটি বাস ফুটপাতে উঠে গেলে তার নিচে কৃষ্ণা চাপা পড়েন। গুরুতর আহত অবস্থায় কৃষ্ণাকে উদ্ধার করে প্রথমে হলি ফ্যামিলি হাসপাতালে এবং পরে ঢাকা মেডিকেল কলেজে (ঢামেক) নেয়া হয়। সর্বশেষ সেখান থেকে তাকে পঙ্গু হাসপাতালে পাঠানো হয়।

ঘটনার পরের দিন ২৮ আগস্ট (বুধবার) বিকেলে হাতিরঝিল থানায় একটি মামলা দায়ের করেন কৃষ্ণার স্বামী রাধে শ্যাম চৌধুরী। এর আগে ট্রাস্ট পরিবহনের পক্ষ থেকে ক্ষতিপূরণ দেয়ার প্রস্তাব দেয়া হয়। ওই প্রস্তাবে রাজি না হয়ে তিনি মামলা দায়ের করেন। কৃষ্ণার বাসা পুরান ঢাকার টিকাটুলী এবং তার এক ছেলে ও এক মেয়ে আছে। তিনি এখন রাজধানীর শেরেবাংলা নগরের জাতীয় অর্থোপেডিক হাসপাতাল ও পুনর্বাসন প্রতিষ্ঠানে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।


আরো সংবাদ